জানুয়ারি ২৭, ২০২২

বাঙলা কাগজ

The Bangla Kagoj । সবচেয়ে বেশি দেশে, সবচেয়ে বেশি ভাষায়। বাঙলা কাগজ । আপনার কাগজ । banglakagoj.net (আমাদের কোনও জাতীয় পত্রিকা নেই)।

অভিজিৎ হত্যা : জিয়া ও আকরামের ব্যাপারে তথ্য দিতে ৫০ লাখ ডলার পুরস্কার ঘোষণা করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাঙলা কাগজ : লেখক-ব্লগার অভিজিৎ রায় হত্যাকাণ্ডেরসঙ্গে জড়িত থাকায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বহিষ্কৃত মেজর জিয়া ও আকরাম হোসেন সম্পর্কে তথ্য দিতে ৫০ লাখ ডলার পুরস্কার ঘোষণা করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের রিওয়ার্ড ফর জাস্টিস কর্মসূচির আওতায় এ পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে।

২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকার বইমেলার খুব কাছেই অভিজিৎ রায় এবং তাঁর স্ত্রী রাফিদা বন্যা আহমেদের ওপর হামলাকারিরা প্রকাশ্যে আক্রমণ চালায়। চাপাতির আঘাতে অভিজিৎ স্বল্প সময়েরমধ্যেই মারা যান। তাঁর স্ত্রী গুরুতরভাবে আহত হন।

রিওয়ার্ড ফর জাস্টিসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘ওই ঘটনার পর আনসারুল্লাহ বাংলা টিম নামে একটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হামলার দায় স্বীকার করে বিবৃতি দেয়। ওই গোষ্ঠী যাদেরকে ইসলাম বিরোধী বলে মনে করে, তাদেরকে হত্যা করতে তরুণদের উস্কে দেয়। ওই ঘটনার অল্প পরেই ভারতীয় উপমহাদেশের আল-কায়েদা শাখার (একিউআইএস) নেতা অসিম ওমার এক ভিডিওবার্তায় দাবি করে যে, তাদের অনুসারীরা ওই হামলা চালিয়েছে।’ অসিম ওমার বর্তমানে প্রয়াত।

বিজ্ঞাপন

ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ২০১৬ সালের পহেলা জুলাই যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর একিউআইএসকে বিদেশি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসেবে চিহ্নিত করে। যুক্তরাষ্ট্রের আইনের আওতায় তাদের সব সম্পদ বাতিল এবং তাদেরসঙ্গে দেশটির যে কোনও নাগরিকের যে কোনও লেনদেন নিষিদ্ধ করে।

ওই খবর প্রকাশিত হবার পর অভিজিৎ-এর স্ত্রী রাফিদা বন্যা আহমেদ তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে বলেছেন, ‘অভিজিতের হত্যাকারীরা এখনও ধরা পড়ে নি। ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৫-য় অভিজিৎ ও আমার ওপর যে হামলা হয়েছিলো, তার মূল পরিকল্পনাকারীদের সম্পর্কে তথ্যের জন্য যুক্তরাষ্ট্র সরকার ৫ মিলিয়ন ডলার পুরস্কার ঘোষণা করেছে।’

অভিজিৎ রায় বাংলাদেশে উগ্র মৌলবাদসহ নানাবিধ সামাজিক নিপীড়নের বিরুদ্ধে বরাবরই সোচ্চার ছিলেন। বাংলাদেশে ব্লগারদের ওপর বিভিন্ন সময় আক্রমণ এবং হয়রানির বিরুদ্ধে তিনি কথা বলতেন। তিনি বিজ্ঞান এবং যুক্তি দিয়ে কথা বলার পক্ষে ছিলেন।

অভিজিৎ রায়কে হত্যার দায়ে ২০২১ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশের এক আদালত আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের পাঁচ সদস্যকে মৃত্যুদণ্ড এবং একজন ব্লগারকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেন। ঢাকার সন্ত্রাস বিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মজিবুর রহমান ওই মামলার রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় মামলার ছয় আসামিরমধ্যে ৪ আসামী আদালতে উপস্থিত ছিলো। এবং বাকি দুইজন ছিলো পলাতক। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা আসামীরা হলো সেনাবাহিনী থেকে বহিষ্কৃত মেজর জিয়া, আকরাম হোসেন, আবু সিদ্দিক সোহেল, মোজাম্মেল হুসাইন ও আরাফাত রহমান।

Facebook Comments Box

বাংলা কাগজ এ আপনাকে স্বাগতম।

X
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
Facebook91m
Twitter38m
LinkedIn4m
LinkedIn
Share
Contact us