পদ্মা সেতুর দৃশ্যমান ৫,৫৫০ মিটার

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাংলা কাগজ; মুন্সীগঞ্জ : মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে ৯ ও ১০ নম্বর পিয়ারের ওপর বসানো হয়েছে ৩৭তম স্প্যান।

এর মধ্য দিয়ে পদ্মা সেতুর ৫ হাজার ৫৫০মিটার দৃশ্যমান হলো।

বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) দুপুর আড়াইটার দিকে ওই স্প্যানটি বসানো হয়।

৩৬তম স্প্যান বসানোর ছয় দিনের মাথায় বসানো হলো এ স্প্যান। পদ্মা সেতুর আর মাত্র ৪টি স্প্যান বসানো বাকি থাকলো।

পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মূল সেতু) দেওয়ান আব্দুল কাদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন- সব পিয়ার ও স্প্যান প্রস্তুত থাকায় এখন দ্রুততম সময়ের মধ্যে স্প্যান বসানো সম্ভব হচ্ছে।

জানা গেছে- ১৬ নভেম্বর ১ ও ২ নম্বর পিয়ারে ৩৮তম স্প্যান ( স্প্যান ১-এ), ২৩ নভেম্বর ১০ ও ১১ নম্বর পিয়ারে ৩৯তম স্প্যান (স্প্যান ২-ডি), ২ ডিসেম্বর ১১ ও ১২ নম্বর পিয়ারে ৪০তম স্প্যান (স্প্যান ২-ই) ও আসছে ১০ ডিসেম্বর ১২ ও ১৩ নম্বর পিয়ারের ওপর ৪১ নম্বর স্প্যান (স্প্যান ২-এফ) বসানোর লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে।

সবমিলে ১০ ডিসেম্বরই পুরো সেতুটি দৃশ্যমান হওয়ার কথা রয়েছে।

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ দ্বিতল পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়।

বিজ্ঞাপন

৩০ হাজার ১৯৩ কোটি ৩৯ লাখ টাকা ব্যয়ে গৃহীত এই প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি ৮১ দশমিক ৫০ ভাগেরও বেশি।

নদী শাসন কাজের বাস্তব অগ্রগতি ৭৪ দশমিক ৫০ ভাগ।

প্রাপ্ত তথ্যমতে- ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ পর্যন্ত পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ২৩ হাজার ৭৯৬ কোটি ২৪ লাখ টাকা।

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের অন্যতম বৃহৎ এ প্রকল্পের মূল সেতু নির্মাণের কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি।

নদীশাসনের কাজ পেয়েছে চীনেরই অপর এক প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন।

আর দুটো সংযোগ সড়ক ও অবকাঠামো নির্মাণ করেছে বাংলাদেশের আবদুল মোমেন লিমিটেড।

এ বিষয়ক : পদ্মা সেতুতে বসলো ৩৬তম স্প্যান, দৃশ্যমান ৫৪০০ মিটার

পদ্মা সেতুর দৃশ্যমান সোয়া পাঁচ কিলোমিটার

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.