মুজিব শতবর্ষ : সেনাবাহিনীর ‘সাইক্লিং এক্সপেডিশন’ যাবে তেতুলিয়া থেকে টেকনাফ

আইএসপিআর ও নিজস্ব সংবাদদাতা, বাংলা কাগজ; বাবলুর রশিদ; পঞ্চগড় : জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী আয়োজন করেছে ‘মুজিব বর্ষ সাইক্লিং এক্সপেডিশন-২০২০।’ এর আওতায় তেতুলিয়া থেকে টেকনাফ যাবেন সেনাবাহিনীর ১শ জন সাইক্লিস্ট। তাঁদের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বহনের সঙ্কেতের ন্যায় ৭১ জন গন্তব্যে পৌঁছার পূর্ব পর্যন্ত সব সময় থাকবেন সাইক্লিংয়ের মধ্যে। ওই ‘সাইক্লিং এক্সপেডিশন’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হয় রোববার (৮ নভেম্বর) তেতুলিয়ার বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্টে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী আয়োজন করেছে ‘মুজিব বর্ষ সাইক্লিং এক্সপেডিশন-২০২০’- আইএসপিআর।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী আয়োজন করেছে ‘মুজিব বর্ষ সাইক্লিং এক্সপেডিশন-২০২০’- আইএসপিআর।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী আয়োজন করেছে ‘মুজিব বর্ষ সাইক্লিং এক্সপেডিশন-২০২০’- আইএসপিআর।

জিওসি, ৬৬ পদাতিক ডিভিশন এবং এরিয়া কমান্ডার রংপুর এরিয়া মেজর জেনারেল নজরুল ইসলাম, এসপিপি, এনডিইউ, এএফডব্লিউসি, পিএসসি, জি শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে ওই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর)’র পক্ষ থেকে জানানো হয়- মুজিব শতবর্ষকে ইতিহাসের পাতায় অমলিন করে রাখতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সদস্যরা তেতুলিয়ার বাংলাবান্ধা থেকে টেকনাফের শাহ পরীর দ্বীপ পর্যন্ত মোট ১ হাজার ১০ কিলোমিটার পথ পাড়ি জমাবেন।

৩ ডিসেম্বর টেকনাফে মুজিব শতবর্ষ ‘সাইক্লিংয়ের এক্সপেডিশন’ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

আর এর সমাপনী অনুষ্ঠান হবে কক্সবাজারের জলতরঙ্গে, ৫ ডিসেম্বর।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীকে স্মরণীয় করে রাখতে সরকার চলতি বছরের ১৭ মার্চ থেকে আগামী বছরের ২৬ মার্চ পর্যন্ত সময়কে ‘মুজিব শতবর্ষ’ হিসেবে উদযাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এ বিষয়ক : প্রধানমন্ত্রী : সেনাবাহিনী দেশের সম্পদ ও মানুষের বিশ্বাসের-ভরসার প্রতীক

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.