লালমনিরহাটে পিটিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যায় প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : গুজব তুলে লালমনিরহাটের পাটগ্রামে একজনকে পিটিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যার ন্যাক্কারজনক ঘটনায় মামলার এজাহারভুক্ত এক নম্বর আসামি আবুল হোসেন ওরফে হোসেন আলীকে (৪১) গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

শনিবার (৭ নভেম্বর) ভোরে ঢাকার কুড়িল বিশ্বরোড এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)।

এ বিষয়ে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ দলের সিনিয়র সহকারি পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ তয়াছির জাহান বলেন, ‘লালমনিরহাটের পাটগ্রাম থানা থেকে আলোচিত ওই হত্যা মামলার আসামি গ্রেপ্তারের জন্য চিঠি দেওয়া হয়েছিল। ওই চিঠির ভিত্তিতে আজ (শনিবার- ৭ নভেম্বর) ভোরে রাজধানীর ভাটারা থানার কুড়িল বিশ্বরোড এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে (আবুল হোসেন) গ্রেপ্তার করা হয়। তাকে পাটগ্রাম থানার পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।’

গত ২৯ অক্টোবর সন্ধ্যায় পাটগ্রামে পবিত্র কোরআন অবমাননার গুজব ছড়িয়ে আবু ইউনুস মোহাম্মদ শহীদুন্নবী নামের এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যা করা হয়।

নিহত শহীদুন্নবী রংপুর শহরের শালবন রোকেয়া সরণি এলাকার আবদুল ওয়াজেদ মিয়ার ছেলে। তিনি রংপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের সাবেক গ্রন্থাগারিক।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় শহীদুন্নবীর চাচাতো ভাই সাইফুল আলম, পাটগ্রাম থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শাহজাহান আলী ও বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আবু সাঈদ নেওয়াজ নিশাত তিনটি মামলা করেন।

শনিবার (৭ নভেম্বর) গ্রেপ্তার হওয়া আবুল হোসেন প্রথম দুটো মামলার এক নম্বর আসামি।

তিনটি মামলায়ই জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশকে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এসব মামলার বিপরীতে এখন পর্যন্ত ২৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাদের মধ্যে ৯ জনকে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে লালমনিরহাটের পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা বাংলা কাগজকে বলেন- ওই ঘটনার ভিডিও বিশ্লেষণের মাধ্যমে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে।

এ বিষয়ক : লালমনিরহাটে গুজব তুলে পিটিয়ে পুড়িয়ে হত্যা : ৫ জন ৩ দিনের রিমান্ডে

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.