রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সমাহিত বীরাঙ্গনা মুক্তিযোদ্ধা পারুল রানী

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাংলা কাগজ; বরগুনা : পাথরঘাটায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীরাঙ্গনা মুক্তিযোদ্ধা পারুল রানীর (৯০) শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে।

শুক্রবার (৬ নভেম্বর) সকাল ১০টায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন করেছে উপজেলা প্রশাসন।

এ সময় সেখানে পাথরঘাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাবরিনা সুলতানা, পাথরঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাবুদ্দিন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার ও জেলা পরিষদের সদস্য এম এ খালেকসহ অন্য মুক্তিযোদ্ধারা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৫ নভেম্বর) রাত নয়টার দিকে বার্ধক্যজনিত কারণে মৃত্যুবরণ করেন বীরাঙ্গনা মুক্তিযোদ্ধা পারুল রানী।

পারুল রানীর স্বামী বীর মুক্তিযোদ্ধা মনোহর মিস্ত্রী এবং ছেলে মনমথ রঞ্জন মিস্ত্রীও একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা।

বিজ্ঞাপন

পারুল রানীর ছেলে বীর মুক্তিযোদ্ধা মনমথ রঞ্জন মিস্ত্রী বলেন- মা দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত কারণে শয্যাশায়ী ছিলেন। তিনি ২০১৮ সালের ২৫ নভেম্বর বীরাঙ্গনা ভাতাপ্রাপ্ত হন।

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় পাক হানাদার বাহিনী পারুল রানীর স্বামী মনোহর মিস্ত্রী, তাঁর ভাই কর্নধর মিস্ত্রী এবং তাঁদের প্রতিবেশি মতিউর রহমানকে গুলি করে হত্যা করে।

পাশাপাশি পুড়িয়ে দেওয়া হয় তাঁদের বাড়িঘর।

ওই সময় পারুল রানীর ছেলে মনমথ রঞ্জন মিস্ত্রী যুদ্ধক্ষেত্রে ছিলেন।

এ বিষয়ক : প্রথম বিসিএসের ৩৯ মুক্তিযোদ্ধাকে ভূতাপেক্ষ পদোন্নতির নির্দেশ

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.