ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ নিয়ে ডাক অধিদপ্তরের স্যুভেনির শিট, উদ্বোধনী খাম, ডাটা কার্ড ও বিশেষ সিলমোহর

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ উপলক্ষে স্যুভেনির শিট ও উদ্বোধনী খাম অবমুক্ত করেছে ডাক অধিদপ্তর।

পাশাপাশি প্রকাশ করা হয়েছে একটি ডাটা কার্ড এবং ব্যবহার করা হয়েছে বিশেষ সিলমোহরও।

বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণকে জাতিসংঘের স্বীকৃতি প্রদান উপলক্ষে এমন বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে অধিদপ্তরটি। যা শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) জানানো হয়েছে সরকারের তথ্য বিবরণীতে।

তথ্য অধিদপ্তরের ওই তথ্য বিবরণীতে বলা হয়- ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) ওই স্যুভেনির শিট ও উদ্বোধনী খাম অবমুক্ত করেন।

স্যুভেনির শিটে দশ টাকা মূল্যমান করে দুটো স্মারক ডাকটিকিট রয়েছে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণকে ‘বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য’র অংশ হিসেবে আজ (৩০ অক্টোবর) থেকে ঠিক তিন বছর আগে (২০১৭ সালের ৩০ অক্টোবর) স্বীকৃতি দেয় ইউনেস্কো।

বিষয়টি উল্লেখ করে শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) সরকারের তথ্যবিবরণীতে জানানো হয়- দিনটিকে স্মরণ করে রাখার জন্য স্যুভেনির শিটের সঙ্গে দশটাকা মূল্যমানের একটি উদ্বোধনী খাম এবং পাঁচটাকা মূল্যমানের একটি ডাটাকার্ডও প্রকাশ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

পাশাপাশি ব্যবহার করা হয়েছে একটি বিশেষ সীলমোহরও।

এ ব্যাপারে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন- ইউনেস্কোর স্বীকৃতি শুধু বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণকেই সম্মান এনে দেয় নি, সমগ্র দেশ ও জাতিকেও সম্মান এনে দিয়েছে।

তথ্যবিবরণীতে আরও জানানো হয়- স্মারক ডাকটিকিটের সমন্বয়ে স্যুভেনির শিট এবং উদ্বোধনী খাম আজ (শুক্রবার- ৩০ অক্টোবর) ঢাকা জিপিও- এর ফিলাটেলিক ব্যুরো থেকে বিক্রি হবে।

পরে অন্য জিপিও ও প্রধান ডাকঘরসহ দেশের সকল ডাকঘর থেকে ওই স্মারক ডাকটিকিট ও ডাটাকার্ড বিক্রি করা হবে বলেও জানানো হয় তথ্য বিবরণীতে।

তথ্য অধিদপ্তর আরও জানিয়েছে- উদ্বোধনী খামে ব্যবহারের জন্য ‘চারটি জিপিওতে’ বিশেষ সিলমোহরের ব্যবস্থাও রয়েছে।

এ বিষয়ক : শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.