মে ১২, ২০২১

Bangla Kagoj । News from Bangladesh, World and Universe at any Language

বাংলা ভাষাসহ পৃথিবির সব ভাষায় সর্বশেষ ও প্রধান খবর, বিশেষ প্রতিবেদন, সম্পাদকীয়, পাঠকমত, খেলাধুলা ও বিনোদনসহ সব প্রান্তের গুরুত্বপূর্ণ সকল খবর।

প্রধানমন্ত্রী : সড়ক দুর্ঘটনা হলে চালককে মারবেন না

Exif_JPEG_420

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : সড়ক দুর্ঘটনা হলে আমরা চালককে মারতে থাকি। দেখা গেল মারতে মারতে তাঁকে মেরেই ফেলি। এভাবে একটা জীবন চলে গেলো। এ কারণে দুর্ঘটনা ঘটলে এখন ড্রাইভার আর গাড়ি না থামিয়ে চলে যায়। ফলে গাড়ির প্রথম চাকা দুর্ঘটনা কবলিত ওই মানুষটির ওপর দিয়ে যাবার পর দ্বিতীয় চাকাটিও যায়। এমন অবস্থায় আমাদেরকে চালককে মারা যাবে না। সড়ক দুর্ঘটনা হলে চালককে মারবেন না। বরং যে দুর্ঘটনা কবলিত হলো, তাঁর জন্য করুন।

প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা তাঁর বাসভবন- গণভবন থেকে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবসের অনুষ্ঠানে যুক্ত হয়ে বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) সকালে এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করে বিটিভি ওয়ার্ল্ড।

প্রধানমন্ত্রী বলেন- সড়ক দুর্ঘটনা হলে যে কেবল চালকেরই দোষ, তা কিন্তু নয়। দেখা গেল- একজন পথচারী হাত দেখিয়ে রাস্তা পার হওয়া শুরু করেন। কিন্তু গাড়ি তো একটি যন্ত্র। এটিতে ব্রেক কষলেও থামতে কিছুটা সময় লাগে। সুতরাং আমাদেরকে এ বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে।

‘দেখা গেল, একজন মা তাঁর সন্তানকে নিয়ে হাঁটছেন। কিন্তু সন্তান হঠাৎ মায়ের হাত
ছেড়ে দিয়ে রাস্তার মাঝখান দিয়ে দৌড় দিল। এক্ষেত্রেও কিন্তু ওই মাকে আরও সচেতন হওয়া উচিত ছিল।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন- একজন ড্রাইভার কতক্ষণ গাড়ি চালাতে পারে, সেটি আমাদেরকে দেখতে হবে। আমরা দেশজুড়ে ড্রাইভারদের জন্য বিশ্রামাঘার তৈরি করে দেব।

‘ফিলিং স্টেশনের কাছেই রেস্টুরেন্ট ও বিশ্রামাগার করা যেতে পারে।’

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন- শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও অফিসে রোড সাইনগুলো পোস্টার আকারে রাখতে হবে। আমাদেরকে আরও সচেতন হতে হবে।

‘দেখা গেল- ফুটওভার ব্রিজের নিচ দিয়েই অনেকে হেঁটে যাচ্ছেন। এটা কিন্তু ঠিক নয়। আবার জেব্রা ক্রসিংয়েও ড্রাইভারদের সতর্ক হতে হবে। সেখানে পথচারীদের আগে যেতে দিতে হবে। সবমিলে ড্রাইভারদের জন্য আরও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা যায়।’

বিজ্ঞাপন

প্রধানমন্ত্রী বলেন- আমাদেরকে দেখতে হবে দুই পয়সা (টাকা) দিয়েই যেন ড্রাইভিং লাইসেন্স পাওয়া না যায়।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সড়ক পরিবহনে তাঁর সরকারের আমলে নেওয়া নানা উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন।

শেখ হাসিনা আরও বলেন- আগামীতে যতো সড়ক হবে, সেখানে সে ধরনের ডিজিটাল ব্যবস্থা থাকবে, যেন কোনও গাড়ি অতিরিক্ত গতিতে চললে আমরা তাঁকে সহজেই ধরতে পারি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পূর্বে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে বক্তব্য দেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

এ বিষয়ক : রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী : আজ জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস

Facebook Comments Box

Contact us

বাংলা কাগজ এ আপনাকে স্বাগতম।

X
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
Facebook91m
Twitter38m
LinkedIn4m
LinkedIn
Share