ডিসেম্বর ৫, ২০২১

The Bangla Kagoj

বিশ্বের সব দেশে, সব ভাষায়, সব সময় । বাংলা কাগজ । আপনার কাগজ । banglakagoj.net (আমাদের কোনও জাতীয় পত্রিকা নেই)।

৮ সপ্তাহের আগাম জামিন পেলেন নিক্সন চৌধুরী

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্ঘনের মামলায় আট সপ্তাহের আগাম জামিন পেয়েছেন ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মুজিবর রহমান চৌধুরী নিক্সন। বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও বিচারপতি কে এম জাহিদ সারোয়ার কাজলের বেঞ্চ শর্তসাপেক্ষে তাঁকে এ জামিন দেন।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) সকালে আগাম জামিনের আবেদনের শুনানির জন্য হাইকোর্টে উপস্থিত হন নিক্সন।

শুনানিতে নিক্সন চৌধুরীর আইনজীবী ছিলেন ড. শাহদীন মালিক ও মনজুর আলম। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল জান্নাতুল ফেরদৌসি রূপা।

শুনানি শেষে আদালত মামলার তদন্তের ক্ষেত্রে সাক্ষীদের প্রভাবিত না করা, স্থানীয় প্রশাসনকে কোনও ভয়ভীতি না দেখানো এবং তদন্ত কর্মকর্তাকে সব ধরনের সহযোগিতা করার শর্তে নিক্সন চৌধুরীকে আগাম জামিন দেওয়া হয়েছে বলে জানান।

জামিন পাওয়ার পর শাহদীন মালিক বাংলা কাগজকে বলেন- জামিনের জন্য যেসব শর্ত দেওয়া হয়েছে, সেগুলি সব মামলায় সবসময়ই থাকে।

বিজ্ঞাপন

‘আইনগতভাবে টেলিফোন কনভারসেশন রেকর্ড করার ক্ষমতা কারও নেই এবং রেকর্ডিং সাক্ষ্য হিসেবে আসতে পারে না- এ দুটি বিষয়কেই শুনানিতে খুব গুরুত্ব দিয়ে তুলে ধরা হয়েছে।’

শাহদীন মালিক আরও বলেন- এজাহারে বলা হয়েছে, মিছিল, মিটিং, শোডাউন করে নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন। আসামি তো একজন; তো একজন আসামি মিছিল, মিটিং ও শোডাউন করে কেমন করে আচরণবিধি লঙ্ঘন করবেন!

‘তাছাড়া হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ ইতোপূর্বে বলেছেন যে- কারো অজান্তে কল রেকর্ড করা বেআইনি, ফাঁস হওয়া বেআইনি। আর সংবিধানের ৪৩ ধারায় আমার যোগাযোগের গোপনীয়তা রক্ষার নিশ্চয়তা দেওয়া হয়েছে।’

গেল বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) ফরিদপুরের জ্যেষ্ঠ নির্বাচন কর্মকর্তা নওয়াবুল ইসলাম চরভদ্রাসন থানায় মামলা করার পর আগাম জামিনের জন্য হাইকোর্টে আবেদন করেছিলেন নিক্সন চৌধুরী।

মামলার এজাহার অনুযায়ী- গত ১০ অক্টোবর চরভদ্রাসন উপজেলার উপ-নির্বাচনে কেন্দ্রভিত্তিক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিযুক্ত করায় জেলা প্রশাসক অতুল সরকারের কাছে টেলিফোনে এর কৈফিয়ত দাবি করেন সাংসদ নিক্সন।

তাঁর প্রার্থী হেরে গেলে মহাসড়ক অবরোধ করবেন- এমন হুমকি দিয়ে নিক্সন জেলা প্রশাসকের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেন বলেও এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

এ বিষয়ক : মুখোমুখি হয়ে পড়ছে সাংসদ, স্থানীয় সরকার ও প্রশাসন

Facebook Comments Box
Contact us

বাংলা কাগজ এ আপনাকে স্বাগতম।

X
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
Facebook91m
Twitter38m
LinkedIn4m
LinkedIn
Share