রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী : বিশ্ব সাদাছড়ি নিরাপত্তা দিবস ১৫ অক্টোবর

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ন্যায় বাংলাদেশেও ১৫ অক্টোবর সাদাছড়ি নিরাপত্তা দিবস পালিত হয়ে আসছে। দিবসটি উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রাষ্ট্রপতি : সারা বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশেও ‘বিশ্ব সাদাছড়ি নিরাপত্তা দিবস-২০২০’ উদযাপিত হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। বিশ্ব সাদাছড়ি নিরাপত্তা দিবসে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিসহ দেশের সকল প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীকে জানাই আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

আন্তর্জাতিকভাবে বিশ্ব সাদাছড়ি নিরাপত্তা দিবস পালন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মানুষকে সমাজের মূল স্রোতধারায় একীভূতকরণের ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রয়াস। সাদাছড়ি দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মানুষের চলাচলের জন্য শুধু একটি সহায়ক উপকরণই নয় এটি তাঁদের পরিচিতির প্রতীক, স্বাধীনভাবে ও নির্বিঘ্নে পথ চলার সহায়ক শক্তি। এ বছরে দিবসটির প্রতিপাদ্য ‘সাদাছড়ির উন্নতি-দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অগ্রগতি’ দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জীবনমান উন্নয়নে করণীয় বিষয়ে সবার মাঝে বার্তা ছড়িয়ে দেবে বলে আমি মনে করি।

প্রতিবন্ধিতা কোনও রোগ নয়; কিংবা তাঁরা সমাজের কোনও বোঝা নন। তাঁদের যথার্থ সেবা, শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও সহায়ক উপকরণ প্রদান নিশ্চিত করা গেলে, তাঁরাও সমাজের আর দশ জন মানুষের ন্যায় জাতীয় অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে সক্ষম।

শারীরিক প্রতিবন্ধিতার জন্য কেউ যেন বৈষম্যের শিকার না হন তা নিশ্চিত করা রাষ্ট্রের দায়িত্ব। এই বাস্তবতাকে স্মরণ করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুব রহমান স্বাধীনতার পর পরই বাংলাদেশের সংবিধানের ২৮(১) ধারায় জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে দেশের সকল নাগরিকের জন্য সমান অধিকার নিশ্চিত করেছেন। অন্যদিকে সংবিধানের ১৫(৪) ধারায় অসুস্থ, প্রতিবন্ধী, বিধবা, এতিম ও বয়স্ক জনগোষ্ঠীর জন্য সামাজিক নিরাপত্তা প্রদানের নিশ্চয়তা প্রদান করা হয়েছে। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মানুষের সুস্থ-স্বাভাবিক জীবনযাপন নিশ্চিত করতে রাষ্ট্রের পাশাপাশি সামাজিকভাবে আমাদের সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। আমি আশা করি সাধারণ মানুষের মধ্যে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মানুষের অধিকার বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টি করতে বিশ্ব সাদাছড়ি নিরাপত্তা দিবস সহায়ক ভূমিকা রাখবে। ‘বিশ্ব সাদাছড়ি নিরাপত্তা দিবস ২০২০’ পালন সফল হোক – এ কামনা করছি।

জয় বাংলা।
খোদা হাফেজ, বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।

প্রধানমন্ত্রী : প্রতি বছরের ন্যায় ১৫ অক্টোবর বাংলাদেশে ‘বিশ্ব সাদাছড়ি নিরাপত্তা দিবস’ উদযাপিত হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। এ উপলক্ষে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীসহ সকল প্রতিবন্ধী ব্যক্তি, পরিবার, সংস্থা-সংগঠন এবং সংশ্লিষ্ট সকলকে আমি আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

এবারের প্রতিপাদ্য ‘সাদাছড়ির উন্নতি-দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অগ্রগতি’ যা অত্যন্ত যথার্থ হয়েছে বলে আমি মনে করি।

বিজ্ঞাপন

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের সংবিধানের ২৮নং অনুচ্ছেদে দেশের সকল নাগরিকের সমঅধিকার নিশ্চিত করেছেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ নির্বাচনী ইশতেহারেও সকল ধরনের প্রতিবন্ধী ব্যক্তির ভাগ্য উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি প্রদান করেছে। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিসহ সকল ধরনের প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অধিকার নিশ্চিত করতে আমরা যুগোপযোগী করে ‘প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা আইন, ২০১৩’ করেছি যেখানে সাধারণ মানুষের ন্যায় প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সমঅধিকার নিশ্চিত করা হয়েছে।

বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার দৃষ্টি প্রতিবন্ধীসহ সকল শ্রেণির প্রতিবন্ধী জনগণের স্বাস্থ্য, শিক্ষা, কর্মসংস্থান, সামাজিক মর্যাদা প্রতিষ্ঠা, প্রবেশগম্যতা তথ্য সামগ্রিক জীবনমান উন্নয়নে জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন গঠন এবং প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্র স্থাপন, জাতীয় প্রতিবন্ধী কমপ্লেক্স ভবন (সুবর্ণ ভবন) নির্মাণ, মোবাইল থেরাপি ভ্যান চালুকরণ, প্রতিবন্ধী ক্রীড়াবিদদের জন্য আন্তর্জাতিক মানের ক্রীড়া কমপ্লেক্স নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ, প্রতিবন্ধী ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য স্বতন্ত্র ও বিশেষায়িত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং প্রশিক্ষণ কেন্দ্র নির্মাণ, শতভাগ প্রতিবন্ধী ব্যক্তিকে সরকারি ভাতার আওতায় আনাসহ নানা কর্মসূচি বাস্তবায়ন করেছে। ভবিষ্যতে এ সকল কার্যক্রমকে আরো সম্প্রসারিত করা হবে এবং দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিসহ এ দেশের সকল শ্রেণির প্রতিবন্ধী জনগণের ভাগ্য উন্নয়নে আমরা প্রয়োজনীয় সকল কার্যক্রম গ্রহণ করব।

সাধারণ সাদাছড়ির পরিবর্তে সরকারি অর্থায়নে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের বিনামূল্যে আধুনিক ইলেকট্রনিক ডিভাইস সমৃদ্ধ ‘স্মার্ট হোয়াইট ক্যান’ প্রদান করা হচ্ছে। ফলে আধুনিক প্রযুক্তির সাদাছড়ি ব্যবহার করে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিগণ আরো স্বচ্ছন্দে চলাফেরা করে জীবনমান উন্নয়্নসহ নিজেদেরকে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত করতে পারবেন বলে আমি প্রত্যাশা করি।

আসুন- আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিবন্ধী মানুষসহ সকল মানুষের জন্য জাতির পিতার স্বপ্নের ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত ও সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলি।

আমি বিশ্ব সাদাছড়ি নিরাপত্তা দিবস উপলক্ষ্যে গৃহীত সকল কর্মসূচির সার্বিক সাফল্য কামনা করছি।

জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু
বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।

এ বিষয়ক : রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী : বিশ্ব মান দিবস ১৪ অক্টোবর

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.