জেএসসি ও এসএসসির গড়ে এইচএসসির ফল

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : ‘করোনাভাইরাসে সংক্রমণের ঝুঁকির কারণে’ উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন- জেএসএসি এবং এসএসসি পরীক্ষার গড় ফলাফলের ভিত্তিতেই এবার এইচএসসির ফলাফল মূল্যায়ন হবে।

বুধবার (৭ অক্টোবর) দুপুর সোয়া ১টায় ভার্চুয়াল এক সংবাদ সম্মেলনে এসে এ কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী।

তিনি বলেন- শিক্ষার্থীদের জীবনের নিরাপত্তায় সার্বিক বিবেচনায় ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষা ভিন্ন পদ্ধতিতে মূল্যায়ন হবে। যেভাবে গ্রহণযোগ্যতা পাবে, তা বিবেচনা করছি। এ পরীক্ষার জন্য ৩০ থেকে ৩২ দিন সময় দরকার হয়। এক বেঞ্চে একজন ছাত্রী সম্ভব নয় এখন কেন্দ্র দ্বিগুণ করার জনবল নেই।

‘২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষা সরাসরি গ্রহণ না করে ভিন্ন পদ্ধতিতে মূল্যায়নের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এরা দুটি পাবলিক পরীক্ষা অতিক্রম করে এসেছে। এদের জেএসসি ও এসএসসির ফলের গড় অনুযায়ী এইচএসসির ফল নির্ধারণ করা হবে।’

মন্ত্রী বলেন- ডিসেম্বরের মধ্যে তাঁরা এইচএসসির চূড়ান্ত মূল্যায়ন ঘোষণা করতে চান, যাতে জানুয়ারি থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হতে পারে।

বিজ্ঞাপন

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মাহাবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদ্রাসা বিভাগের সচিব আমিনুল ইসলাম খান, মাধ্যমিক এবং উচ্চশিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হকসহ সব শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানরা।

প্রসঙ্গত- এবারের পরীক্ষায় ১৩ লাখ শিক্ষার্থীর অংশ নেওয়ার কথা ছিল। গত পহেলা এপ্রিল থেকে চলতি বছরের এইচএসসি পরীক্ষা হওয়ার কথা থাকলেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের পাশাপাশি তা পিছিয়ে দেওয়া হয়।

পাশাপাশি সরকারি-বেসরকারি সকল প্রতিষ্ঠান চালুর সঙ্গে দেশের সকল কার্যক্রম স্বাভাবিক গতিতে চললেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত বহাল রেখে ছুটি আগামী ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

এ বিষয়ক : সবকিছু স্বাভাবিক চললেও কলেজ জীবন শুরু হলো অনলাইনে

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.