আগস্ট ৪, ২০২১

The Bangla Kagoj

আপনার কাগজ । banglakagoj.net

৩১ ঘণ্টায়ও সন্ধান মেলে নি আত্রাই নদীতে ডুবে যাওয়া মিল্লাতের

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাংলা কাগজ; আমিনুর রহমান খোকন, মহাদেবপুর, নওগাঁ : নওগাঁর মহাদেবপুরের আত্রাই নদীতে ডুবে যাওয়া ১৮ বছর বয়সী যুবক মিল্লাতকে ৩১ ঘণ্টায়ও উদ্ধার করতে পারে নি এলাকাবাসী কিংবা ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। রোববার (৪ অক্টোবর) বিকেল চারটায় সে নিখোঁজ হওয়ার পর এখনও (এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৫ অক্টোবর- সোমবার রাত ১১টা) তাঁকে উদ্ধারে সমর্থ হন নি কেউ।

জানা গেছে- মিল্লাতকে উদ্ধার করতে পারে নি রাজশাহী বিভাগীয় ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের ডুবুরি দল। তাঁকে উদ্ধার করতে না পেরে সোমবার বেলা ১১টায় ডুবুরি দল ফিরে গেছে। এর আগে দলটি তিন ঘণ্টা উদ্ধার অভিযান চালায়।

তবে মিল্লাতের পরিবারসহ এলাকাবাসী এখনও আত্রাই নদীর বিভিন্নস্থান থেকে তাঁকে উদ্ধারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

মিল্লাত উপজেলার বুজরকান্তপুর পূর্বপাড়া গ্রামের আবুল কালামের ছেলে।

জানা গেছে- রোববার (৪ অক্টোবর) বিকেল ৪টার দিকে কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে উপজেলার রামচন্দ্রপুর এলাকায় আত্রাই নদী পার হচ্ছিল মিল্লাত। সাঁতার কেটে নদী পাড়াপারের সময় তিনি তলিয়ে যান। বিষয়টি জানতে পেরে স্থানীয়রা রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চালায়। তাঁকে (মিল্লাত) খুঁজে না পাওয়ায় মহাদেবপুর ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সে খবর দিলে প্রায় ১১ ঘন্টা পর সোমবার (৫ অক্টোবর) সকাল ৮টায় উদ্ধার অভিযান শুরু হয়। তবে ফায়ার সার্ভিসের তিন ঘণ্টার অভিযানেও উদ্ধার হন নি মিল্লাত।

বিজ্ঞাপন

এ সময় আত্রাই নদীর পাটকাটি এলাকা থেকে মধুবন পর্যন্ত অভিযান চালানো হয়।

তবে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেওয়ার ১১ ঘণ্টা পর অভিযান শুরু হওয়ায় এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। এ নিয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তাদের দুষছেন স্থানীয়রা।

বুজরকান্তপুর গ্রামের বাসিন্দা এফ আই সবুজ বলেন- মহাদেবপুর ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সে খবর দেওয়ার প্রায় ১১ ঘণ্টা পর্যন্ত উদ্ধার অভিযানে কোনও সহায়তা পাওয়া যায় নি। অথচ নিখোঁজ যুবককে উদ্ধারে স্থানীয় কয়েক শত মানুষ এক করে দিয়েছে আত্রাই নদীর একূল-ওকূল।

তিনি জানান- মিল্লাতের পরনে ছিলো জিন্স প্যান্ট ও হলুদ রঙের টি-শার্ট। তিনি শ্যমলা বর্ণের, আর উচ্চতা ৫ ফুট ৬ ইঞ্চি।

এ ব্যাপারে জানতে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে মহাদেবপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন অফিসার রোস্তম আলী বাংলা কাগজকে বলেন- মহাদেবপুর ও নওগাঁ ফায়ার সার্ভিসে ডুবুরি নেই। রোববার (৪ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে খবর পেলে ডুবুরি পেতে রাজশাহী ফায়ার সার্ভিসে খবর দেওয়া হয়। রাতে নদীতে উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করা সম্ভব না হওয়ায় পরদিন সকালে উদ্ধার অভিযান শুরু করা হয়। তবে নিখোঁজ ব্যক্তিকে খুঁজে পাওয়া যায় নি।

এ বিষয়ক : নারায়ণগঞ্জে ‘মৃত’ ফেরার আরেক ঘটনা, পুলিশের ব্যাখ্যা চান আদালত

Facebook Comments Box
Call Now ButtonContact us

বাংলা কাগজ এ আপনাকে স্বাগতম।

X
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
Facebook91m
Twitter38m
LinkedIn4m
LinkedIn
Share