মধ্যরাতে বসলো হাইকোর্ট, দুই শিশু ফিরলো বাড়ি

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : টেলিভিশনের আলোচনা অনুষ্ঠান দেখে মধ্যরাতে আদালত বসিয়ে আদেশ দিলেন হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ; সেই আদেশের পর সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল কে এস নবীর দুই নাতিকে বাসায় দিয়ে এলো পুলিশ।

শনিবার (৩ অক্টোবর) রাতে একাত্তর টিভিতে শিশু অধিকার নিয়ে এক আলোচনায় উঠে আসে, কে এস নবীর দুই নাতিকে বাসায় ঢুকতে দিচ্ছেন না তাদের চাচা।

ওই আলোচনায় উপস্থিত আইনজীবী মনজিল মোরসেদ বলেন- একাত্তর জার্নালের একটা চ্যাপ্টার ছিল শিশু অধিকার নিয়ে। সেটাতে আমি যুক্ত ছিলাম। ওই টকশোতে আলোচনায় আসে যে সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার কে এস নবীর দুই নাতিকে বাসায় ঢুকতে দিচ্ছেন না তাদের চাচা। তখন আমি বললাম- এটা তো মানবাধিকার লঙ্ঘন। উনি যেহেতু আইনজীবী, উনার তো এটা আরও ভালো করে জানার কথা। তাছাড়া পুলিশও তাদের দায়িত্বটা নাকি সঠিকভাবে পালন করে নি। থানায় গিয়ে ফেরত আসতে হয়েছে শিশু দুটির। থানা থেকে বলেছে কোর্টে যেতে।

মনজিল মোরসেদ আরও বলেন- এ কথা শোনার পরই বোধ হয় টকশোর শেষ দিকে বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের আদালত একটি স্বতঃপ্রণোদিত রুল ইস্যু করে ধানমণ্ডি থানাকে নির্দেশ দেয় যে, এখনি ওই বাসায় শিশু দুটির থাকার ব্যবস্থা করতে এবং তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য।

পরে সুপ্রিমকোর্ট থেকে ধানমণ্ডি থানার ওসির সঙ্গে যেগাযোগ করা হলে পুলিশ শিশু দুটির থাকার ব্যবস্থা করে দেয় এবং নিরাপত্তা নিশ্চিত করে।

বিজ্ঞাপন

সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল কে এস নবীর দুই ছেলে। বড় ছেলে কাজী রেহান নবী সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী। ছোটো ছেলে সিরাতুন নবী গত ১০ আগস্ট মারা যান। তার দুই ছেলেকেই বাড়িতে ঢুকতে দিচ্ছিলেন না তাদের চাচা কাজী রেহান নবী।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ধানমণ্ডি থানার ওসি ইকরাম আলী মিয়া বলেন- আমরা খুব সুন্দরভাবে দুই শিশুকে রাত দেড়টার দিকে তাদের বাসায় পৌঁছে দিয়ে এসেছি।

এ বিষয়ক : হাইকোর্ট : ফোন রেকর্ড প্রকাশ বন্ধ করতে হবে

৯ জুনের মধ্যে আইসিইউ’র সেন্ট্রাল মনিটরিংয়ের তথ্য চান হাইকোর্ট

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.