শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষে ডাক অধিদপ্তর স্মারক ডাকটিকিট অবমু্ক্ত করেছে।

২৮ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষে ঢাকায় ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার ১০ টাকা মূল্যমানের স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত করেন।

মোস্তাফা জব্বার প্রধানমন্ত্রীকে তাঁর জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন- শেখ হাসিনা যে ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম করছেন, তার বড় হাতিয়ার ডিজিটাল অবকাঠামো। তিনি ডিজিটাল বাংলাদেশে অবকাঠামো সম্প্রসারণে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অধীন সকল সংস্থাকে তাদের ওপর প্রদত্ত দায়িত্ব দেশপ্রেমের মহানব্রত নিয়ে আরও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান।

মন্ত্রী ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ কর্মসূচিকে দেশের অভাবনীয় অগ্রগতির মাইলফলক উল্লেখ করে বলেন- জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের যোগ্য উত্তরসূরী হিসেবে শেখ হাসিনা তার সততা, আত্মত্যাগ, দূরদর্শিতা ও দেশপ্রেমের উজ্জ্বল স্বাক্ষর রেখেছেন–এটাই হচ্ছে তার সবচেয়ে বড় কৃতিত্ব।

বিজ্ঞাপন

মন্ত্রী কোভিড পরিস্থিতিতে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ ও এর অধীন সংস্থাগুলোর ভূমিকা তুলে ধরে বলেন- বৈশ্বিক মহামারি পরিস্থিতিতে জীবন বাজি রেখে আপনারা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন, চিকিৎসা সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন, কৃষকের ফল ও ফসল রাজধানীতে বিনা মাশুলে পৌঁছে দিয়েছেন। টেলিযোগাযোগ ও ইন্টারনেট নিরবচ্ছিন্ন রাখতে ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেছেন। এই জন্য তিনি সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব নূর-উর-রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিটিআরসি চেয়ারম্যান জহুরুল হক, টেলিকম অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মহসীনুল আলমসহ ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ এবং ডাক অধিদপ্তরসহ ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অধীন সকল সংস্থার কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা ডিজিটাল প্লাটফর্মে সংযুক্ত ছিলেন। ডাক অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক হারুন অর রশিদ অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন।

এ বিষয়ক : মুক্তিযুদ্ধে স্মারক ডাকটিকিট অবিস্মরণীয় ভূমিকা রেখেছে : মোস্তাফা জব্বার

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.