জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রী : মিয়ানমারকেই রোহিঙ্গা ফিরিয়ে নিতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : রোহিঙ্গা সমস্যা মিয়ানমারই সৃষ্টি করেছে এবং মিয়ানমারকেই রোহিঙ্গা ফিরিয়ে নিতে হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ সময় রাত সোয়া আটটার দিকে জাতিসংঘের ৭৫তম সাধারণ অধিবেশনে দেওয়া ভাষণে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনার ভাষণ প্রথমে ইংরেজিতে অনূদিত হলেও পরে বাংলায়ই প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ তাঁরই কণ্ঠেই প্রচারিত হয়।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কণ্ঠে কণ্ঠ মিলিয়ে শেখ হাসিনা বলেন- আমাদের কূটনীতি হচ্ছে, সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব; কারও সঙ্গে বৈরিতা নয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন- এ পর্যন্ত মিয়ানমার একজন রোহিঙ্গাকেও ফিরিয়ে নেয় নি। অথচ তারাই এ সমস্যা সৃষ্টি করেছে।

প্রধানমন্ত্রী এ সময় করোনাভাইরাসের সময় তাঁর সরকারের দেওয়া প্রণোদনার কথা তুলে ধরেন। তুলে ধরেন বিধবা ভাতা, কৃষি ভর্তুকি ও নারীর ক্ষমতায়নের কথাও।

শেখ হাসিনা বলেন- সবদেশ যাতে একসঙ্গে করোনার ভ্যাকসিন পায়, সেদিকে আমাদের খেয়াল রাখতে হবে। একইসঙ্গে বাংলাদেশকে অনুমোদন দেওয়া হলে বিপুল পরিমাণে ভ্যাকসিন তৈরির ক্ষমতা রয়েছে আমাদের।

বিজ্ঞাপন

নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের (ইউএনজিএ) ভার্চুয়াল ভাষণের শুরুতেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন- কোভিড-১৯ মহামারির কারণে আমরা মানব ইতিহাসের এক অভাবনীয় দুঃসময় অতিক্রম করছি। জাতিসংঘের ইতিহাসেও এই প্রথমবারের মতো নিউইয়র্কের সদরদপ্তরে সদস্য দেশসমূহের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানগণের অনুপস্থিতিতে ডিজিটাল পদ্ধতিতে সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন- জাতিসংঘের এই সভাকক্ষটি আমার জন্য অত্যন্ত আবেগের। ১৯৭৪ সালে এই কক্ষে দাঁড়িয়ে আমার পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একটি সদ্য স্বাধীন দেশের সরকার প্রধান হিসেবে মাতৃভাষা বাংলায় প্রথম ভাষণ দিয়েছিলেন। আমিও এই কক্ষে এর আগে ১৬ বার স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে বিশ্বশান্তি ও সৌহার্দের ডাক দিয়েছি। সরকার প্রধান হিসেবে জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে এটি আমার ১৭তম বক্তব্য।

এ বিষয়ক : জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর বাংলায় প্রথম ভাষণ স্মরণে ই-পোস্টার

প্রধানমন্ত্রী ২৫ সেপ্টেম্বরের আলোচনায় জোর দিলেন অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর

প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘে ভাষণ দেবেন শনিবার রাত ৮টায়

জয়তু শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক দাবা টুর্নামেন্টের শীর্ষে সুসান্ত

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.