ফলোআপ : হোটেল থেকে দুই মরদহে উদ্ধারের ঘটনায় তৎপর আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাংলা কাগজ; রাসেল কবির মুরাদ, কলাপাড়া (পটুয়াখালী) : হোটেল থেকে দুই মরদেহ উদ্ধারের পর তৎপরতা শুরু করেছে কলাপাড়া ও কুয়াকাটার আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

উল্লেখ করা যেতে পারে- গত ২১ সেপ্টেম্বর (সোমবার) কুয়াকাটায় মাত্র ৪ ঘণ্টার ব্যবধানে আবাসিক হোটেল থেকে সৌরভ জামিল সোহাগ (৫৫) এবং মানিক (৪৫) নামে দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

ওই মরদেহ উদ্ধারের পর হোটেল-মোটেল, কর্টেজ, রিসোর্ট মালিক ও তাঁদের প্রতিনিধিদের নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে কুয়াকাটায়। বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) শেষ বিকেলে পর্যটন করপেরেশনের যুবপান্থ নিবাসের হলরুমে ওই সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন কুয়াকাটা পৌর মেয়র আ. বারেক মোল্লা, কলাপাড়া সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আহম্মেদ আলী, কুয়াকাটা টুরিস্ট পুলিশ জোনের ইনেসপেক্টর মিজানুর রহমান প্রমুখ।

মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন পটুয়াখালী জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মইনুল হাসান। প্রধান অতিথির বক্তব্যে কুয়াকাটায় ধারাবাহিকভাবে খুনসহ নানা অপরাধ প্রবণতা রোধে হোটেল কর্তৃপক্ষকে আরও সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান মইনুল হাসান।

বিজ্ঞাপন

এ সময় তিনি বলেন- নিরাপত্তার স্বার্থে জেলা পুলিশের নির্দেশনা মোতাবেক হোটেলে অবস্থানকারকারী পর্যটকদের ১৮টি তথ্য পূরণ করলে অপরাধীরা এমন অপরাধ করার সাহস পেতো না।

পটুয়াখালী জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মইনুল হাসান আরও বলেন- আগত পর্যটক এবং রাষ্ট্রের নিরাপত্তার স্বার্থে হোটেলে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করতে হবে। অধিকাংশ হোটেলে পুলিশের দেওয়া নিয়ম না মেনে হোটেল পরিচালনা করার কারণে নানা অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটছে।

যারা আবাসিক হোটেল পরিচালনায় নিয়ম মানবেন না, তাঁদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেই এ সময় হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে হোটেল-মোটেল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোতালেব শরীফ ও কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের সভাপতি নাসির উদ্দিন বিপ্লব বক্তব্য দেন।

এ বিষয়ক : ৪ ঘণ্টার ব্যবধানেই হোটেল থেকে ২ মরদেহ উদ্ধার!

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.