জুন ২২, ২০২১

The Bangla Kagoj

আপনার কাগজ । banglakagoj.net

৪ ঘণ্টার ব্যবধানেই হোটেল থেকে ২ মরদেহ উদ্ধার!

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাংলা কাগজ, রাসেল কবির মুরাদ, কলাপাড়া, পটুয়াখালী : কুয়াকাটায় মাত্র ৪ ঘণ্টার ব্যবধানে আবাসিক হোটেল থেকে সৌরভ জামিল সোহাগ (৫৫) এবং মানিক (৪৫) নামে দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও হোটেল সূত্রে জানা গেছে- সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুরের পর আল্লাহর দান আবাসিক হোটেল থেকে মানিকের লাশ উদ্ধার করা হয়। অপরদিকে মাত্র চার ঘণ্টারও কম সময়ে সৌরভ জামিল সোহাগের নামে আরও একটি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

জানা গেছে- রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) লাইট ব্লু কালারের প্রাইভেট কারে করে টুকু নামে একজনকে নিয়ে সাউথ বাংলা আবাসিক হোটেলের ১১২ নম্বর কক্ষে ওঠেন সৌরভ জামিল সোহাগ নামে এক ব্যক্তি। পরে ওই সোহাগকেই হত্যা করা হয়। আর নিহত সোহাগের বাসা খুলনা জেলার দৌলতপুর উপজেলার আঞ্জুমান সড়কেই বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে- সোহাগের সন্দেহভাজন হত্যাকারী টুকু খুলনার একটি আবাসিক হোটেল মালিকের ছেলে।

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুরের পর টুকু পিঠে একটি ব্যাগ ঝুলিয়ে হোটেলের রুম ত্যাগ করে প্রাইভেট কার নিয়ে বেরিয়ে যান। হোটেলে থাকা সিসি ক্যামেরার ফুটেজ এবং ডায়েরিরভিত্তিতেই পুলিশ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

শেষবিকেলে ওই হোটেলের বয় মুসা (২৫) কক্ষ পরিষ্কার করতে গিয়ে দরজা খোলা এবং খাটের ওপর শুয়ে থাকা সৌরভ জামিল সোহাগের মৃতদেহ দেখতে পান। ওই সময় খবর দেওয়া হলে মহিপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে।

অপরদিকে আবাসিক হোটেল আল্লার দান থেকে মানিক (৪৫) নামে অপর এক জেলের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে মহিপুর থানা পুলিশ। সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুরের পর ওই হোটেলের ২০৪ নম্বর কক্ষ থেকে মানিকের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত মানিক চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী থানার সনুয়া গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে।

বিজ্ঞাপন

জানতে চাইলে মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বাংলা কাগজকে বলেন- এগুলো পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড হিসেবেই প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) দিন ও রাতে লাশ ‍দুটো উদ্ধারের পর পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে ময়নাতদন্তের জন্য।

পটুয়াখালী সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গণমাধ্যমকে বলেন- বিছানাপত্র এবং মৃতদেহের অবস্থা দেখে ধারণা করা হচ্ছে, হত্যাকারী বালিশচাপা দিয়ে হত্যা নিশ্চিত করে পালিয়েছে। বিষয়গুলো নিয়ে অধিকতর তদন্ত এবং ময়না তদন্ত রিপোর্ট হাতে পাবার পরই হত্যার প্রকৃত কারণ জানা যাবে বলে মনে করছি।

এ বিষয়ক : মুক্তিপণ না পেয়ে আশুলিয়ায় কিশোর পিটিয়ে হত্যা!

Facebook Comments Box

Call Now ButtonContact us

বাংলা কাগজ এ আপনাকে স্বাগতম।

X
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
Facebook91m
Twitter38m
LinkedIn4m
LinkedIn
Share