জুন ২২, ২০২১

The Bangla Kagoj

আপনার কাগজ । banglakagoj.net

বিরোধের পর অবশেষে বন্ধ হলো হাটহাজারী মাদরাসা

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : দুই দিনের বিক্ষোভ, উত্তেজনা ও ভাঙচুরের পর অবশেষে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে চট্টগ্রামের হাটহাজারীর আল-জামিয়াতুল তাহলিমা দারুল উলূম মঈনুল ইসলাম মাদ্রাসা। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ জানিয়েছে, শর্ত ভঙ্গের অভিযোগে মাদ্রাসাটি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করা হয়েছে।

সম্প্রতি মাদ্রাসার মহাপরিচালক ও হেফাজতে ইসলামের আমির শাহ আহমদ শফীর ছেলে আনাস মাদানিকে অপসারণসহ ছয় দফা দাবিতে সেখানে বিক্ষোভ ও উত্তেজনা চলছিল। এর মধ্যেই মাদ্রাসাটি বন্ধ ঘোষণা করলো সরকার।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করেছে।

যা তথ্য অধিদপ্তরের তথ্য বিবরণীতেও জানানো হয়েছে।

তথ্যবিবরণীতে বলা হয়েছে- আরোপিত শর্ত যথাযথভাবে প্রতিপালিত না হওয়ায় চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী উপজেলার আল-জামিয়াতুল তাহলিমা দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম মাদ্রাসা পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

জানা গেছে- শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ থেকে জারি করা আদেশে সেটি বন্ধ করা হয়।

সূত্র জানায়- কওমি মাদ্রাসা সমূহের দাবির প্রেক্ষিতে, গত ২৪ আগস্ট করোনার স্বাস্থ্যবিধি মানার শর্ত সাপেক্ষে, কওমি মাদ্রাসা সমূহের কিতাব বিভাগের কার্যক্রম শুরু ও পরীক্ষা গ্রহণের অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু শর্ত ভঙ্গ করায় মাদরাসাটি বন্ধ ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত নেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

বিজ্ঞাপন

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) থেকে মাদরাসাটিতে উত্তেজনা চলছিল। সেখানে দু’পক্ষের মুখোমুখি অবস্থানে ভাঙচুরের ঘটনাও ঘটে। সেখানে এখনও থমথমে পরিস্থিতি রয়েছে।

আল-জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলূম মঈনুল ইসলাম মাদরাসা বাংলাদেশের অন্যতম পুরনো ও বড় কওমি মাদ্রাসা। সাত হাজারের বেশি শিক্ষার্থী সেখানে অধ্যয়ন করে। এ মাদ্রাসার মহাপরিচালক শাহ আহমদ শফী বাংলাদেশ কওমি মাদ্রাসা বোর্ড বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশেরও (বেফাক) সভাপতি। তিনি হেফাজতে ইসলামের সর্বোচ্চ নেতা। দীর্ঘদিন ধরে এর মহাপরিচালকের পদে থাকা আহমদ শফীর বয়স হওয়ায় এই মাদরাসা কর্তৃত্ব নিয়ে সম্প্রতি বিরোধ দেখা দেয়।

গত জুন মাসে মাদ্রাসার শুরা কমিটির বৈঠকে জুনাইদ বাবুনগরীকে সহকারী পরিচালেকের পদ থেকে সরিয়ে শেখ আহমদকে নিয়োগ দেওয়ার পর আহমদ শফীর সমর্থকদের সঙ্গে বাবুনগরী পক্ষের বিরোধ প্রকাশ্য হয়। পরে অবশ্য বাবুনগরীকে স্বপদে ফিরিয়ে আনা হয়। এসবের ধারাবাহিকতায় বুধ (১৬ সেপ্টেম্বর) ও বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সেখানে বিক্ষোভ ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ক : পাকিস্তানে ‘নবী’ দাবি করায় এক ব্যক্তিকে আদালতেই গুলি করে হত্যা

Facebook Comments Box

Call Now ButtonContact us

বাংলা কাগজ এ আপনাকে স্বাগতম।

X
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
Facebook91m
Twitter38m
LinkedIn4m
LinkedIn
Share