ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অনুতপ্ত, আসবে পেঁয়াজ

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : ঘোষণা ছাড়াই পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করায় ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অনুতাপ প্রকাশ করেছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি। এদিকে ইতোমধ্যে এলসি করা এক লাখ টন পেঁয়াজ ভারত পাঠাবে বলে সম্মত হয়েছে। একইসঙ্গে ওপারে ট্রাকে আটকে পড়া পেঁয়াজগুলোও আসছে বাংলাদেশের জন্য।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন- পেঁয়াজ রপ্তানি হঠাৎ বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর ভারতের সঙ্গে আমরা যোগাযোগ করেছি। ঘোষণা না দিয়ে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করায় দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আমাদের কাছে অনুতাপ প্রকাশ করেছে।

দেশে পেঁয়াজের সরবারাহ স্বাভাবিক রাখতে তুরস্ক থেকে আমদানি করা হবে বলেও জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

গত সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের ঘোষণা দেয় ভারত। রপ্তানি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় গত দু’দিনের মধ্যে বাংলাদেশে পেঁয়াজের দাম কয়েক গুণ বেড়ে যায়।

বিজ্ঞাপন

দেশে সাতক্ষীরার ভোমরা, দিনাজপুরের হিলি ও যশোরের বেনাপোল দিয়ে বেশি ভারতের পেঁয়াজ আমদানি হয়। রপ্তানি বন্ধ ঘোষণার পর এসব স্থলবন্দরের ওপারে অপেক্ষায় রয়েছে পেঁয়াজবাহী ট্রাক।

এ বিষয়ক : অর্থমন্ত্রী : পেঁয়াজে শুল্ক কমানোর বিষয়টি বিবেচনা করা হবে

পেঁয়াজ নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার জন্য বললেন বাণিজ্যমন্ত্রী

পেঁয়াজ আমদানিতে এলসি মার্জিন সর্বোচ্চ ৯ শতাংশ

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.