অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমানের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী বাংলা কাগজ

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমানের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী বাংলা কাগজ। সাবরীনার দ্বিতীয় এনআইডি : জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে মিজানকে শিরোনামে বাংলা কাগজে গত ৩ সেপ্টেম্বর প্রকাশিত প্রতিবেদনের জন্য বাংলা কাগজ কর্তৃপক্ষ এ ক্ষমা চাইছে।

প্রতিবেদনের একাংশে উল্লেখ করা হয়েছে- ‘ইসির তথ্যভাণ্ডার বলছে- দ্বিতীয়বার ভোটার হওয়ার সময় সাবরীনার আবেদনপত্রে ছিল ড. মিজানুর রহমানের রেফারেন্স। এমনকি ড. মিজান নিজেই উপস্থিত হয়ে সাবরীনার জন্য তদবির করেন বলে জানান এনআইডির টেকনিক্যাল এক্সপার্ট মো. শাহাবুদ্দিন।

তিনি বলেন, ফাইলটাতে দেখলাম মিজানুর রহমান স্যারের কার্ড আছে। মিজান স্যার ওনাকে নিয়ে এসেছিলেন।’

এ ধরনের বক্তব্যের ব্যাপারে ৪ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) গণমাধ্যমে পাঠানো প্রতিক্রিয়ায় অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান ইসির সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা এবং সময় টিভিকে তাঁর কাছে ক্ষমা চাইতে বলেছেন বলে শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

বিজ্ঞাপন

এক্ষেত্রে বাংলা কাগজের নাম উল্লেখ করা না হলেও আমরা যেহেতু সময় টিভির ন্যায় একই বিষয় নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছি, সুতরাং বাংলা কাগজ কর্তৃপক্ষ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক এবং সাবেক মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমানের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী।

উল্লেখ করা যেতে পারে- অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান দাবি করেছেন, জেকেজির চেয়ারম্যান ডা. সাবরীনা আরিফ চৌধুরীর দ্বিতীয় দফায় জাতীয় পরিচয়পত্র করার ক্ষেত্রে আবেদনপত্রে তাঁর যে ভিজিটিং কার্ড রয়েছে, সেটি মিজানের নয়। একইসঙ্গে তিনি দাবি করেছেন- তিনি কখনোই নির্বাচন কমিশনে যান নি।

আরও পড়ুন : সাবরীনার দ্বিতীয় এনআইডি : জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে মিজানকে

দ্বিতীয় এনআইডি : সাবরীনার দুই দিনের রিমান্ড; প্রশ্নবিদ্ধ ইসি

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.