সাংবাদিক জুলহাস হত্যা : মামলা, গ্রেপ্তার দুই, মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল বিজয় টিভির উপজেলা প্রতিনিধি জুলহাস উদ্দিনকে (৩৫) ধামরাইয়ে ছুরিকাঘাতে হত্যার ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের করেছে নিহতের পরিবার। শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) ভোরে পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে ওই মামলা দায়ের করা হয়। মামলা দায়ের করেন জুলহাস উদ্দিনের বোন রিনা খাতুন। ধামরাই থানায় দায়ের করা ওই মামলায় দু’জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) রাতেই গ্রেপ্তার হওয়াদের আটক করা হয়। পরে মামলা শেষে তাদের গ্রেপ্তার দেখানো হয়। এদিকে জুলহাস হত্যার ঘটনায় ধামরাইসহ দেশের বিভিন্নস্থানে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন সাংবাদিকেরা।

বিজয় টিভির সাংবাদিককে ছুরিকাঘাত ও কুপিয়ে খুন

সম্পাদকীয় মত : একজন সাংবাদিক খুন ও একজন ইউএনও গুরুতর আহত

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে- বৃহস্পতিবার বিকেলে বিজয় টিভির ধামরাই উপজেলা প্রতিনিধি জুলহাস উদ্দিন ব্যক্তিগত কাজে নিজের প্রাইভেট কারে মানিকগঞ্জ যান। এ সময় তাঁর প্রাইভেটকারটি নষ্ট হয়ে গেলে তিনি একটি লোকাল যাত্রীবাহী বাসে উঠেন ধামরাইয়ে যাওয়ার জন্য।

বিজ্ঞাপন

পরে ওই বাসে উঠেন ঘাতকরা। আর জুলহাস উদ্দিন যাত্রীবাহী বাস থেকে বাড়বাড়িয়া বাসস্ট্যান্ডে নামার সঙ্গে সঙ্গে সন্ত্রাসী শাহীন ও মোজাম্মেলসহ আরও কয়েকজন বাস থেকে নেমেই জুলহাস উদ্দিনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারিভাবে কোপায় ও ছুরিকাঘাত করে। এর কিছুক্ষণ পরই তাঁর মৃত্যু হয়।

এদিকে রাতেই নিহতের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে জুলহাস উদ্দিনের নিজগ্রাম হাতকোরায় দাফন করা হয়।

জানতে চাইলে ধামরাই থানার ওসি দীপক চন্দ্র সাহা বাংলা কাগজকে বলেন, ‘মামলার অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। আর কি কারণে তাঁকে হত্যা করা হয়েছে, সে বিষয়টি গভীরভাবে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।’

মানববন্ধন : নিহত ওই সাংবাদিক জুলহাস উদ্দিন হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবিতে ধামরাই প্রেসক্লাবের সাংবাদিকেরা শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ধামরাই প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেন। দেশের আরও কয়েকটি স্থানে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিলের খবর পাওয়া গেছে।

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.