প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শেষকৃত্য সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : ভারতের রাজনীতিতে অবসান হল যুগের। যাবতীয় কোভিড প্রোটোকল মেনে পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়কে শেষবিদায় জানানো হল।

প্রণব মুখোপাধ্যায়ের প্রতি ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির শ্রদ্ধা- এএনআই’র সৌজন্যে বাংলা কাগজ।

দুপুর একটার কিছুটা পরে ১০, রাজাজি মার্গের বাসভবন থেকে লোধি রোডের শশ্মানে নিয়ে যাওয়া হয় প্রণববাবুর মরদেহ। পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সেখানেই তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।

আরও পড়ুন : পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শেষকৃত্য আজ, থাকবেন মোদি

প্রণবাবুকে শেষ শ্রদ্ধা জানালেন দেশটির রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতারা।

বরাবরই রাজনীতির উর্ধ্বে ছিলেন তিনি। বিভিন্ন দলের নেতানেত্রীদের সঙ্গে মধুর সম্পর্কও ছিল তাঁর। আর সেই প্রণব মুখোপাধ্যায়কে শেষ বিদায় জানানোর জন্য রাজনীতিকে দূরে সরিয়ে রেখে এগিয়ে এলেন বিভিন্ন দলের নেতানেত্রীরা। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতিকে শেষ শ্রদ্ধা জানালেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিরা।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার সকালে ন’টা নাগাদ দিল্লির সেনা হাসপাতাল থেকে প্রণববাবুর মরদেহ ১০, রাজাজি মার্গের বাসভবনে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রণববাবুর একটি ছবি রাখা হয়। সেই ছবিতে পুষ্পার্ঘ্য নিবেদন করে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতিকে শ্রদ্ধা জানান রাষ্ট্রপতি। পরে একটি টুইটবার্তায় রাষ্ট্রপতি ভবনের তরফে বলা হয়, ‘ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রয়াত শ্রী প্রণব মুখোপাধ্যায়কে নয়াদিল্লির ১০, রাজাজি মার্গের বাসভবনে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ।’

নিজের ‘পথপ্রদর্শক’ প্রণববাবুকে শেষ শ্রদ্ধা জানান মোদিও। তাঁর ছবির সামনে পুষ্পস্তবক রেখে মাথা নিচু করে প্রণাম করেন প্রধানমন্ত্রী। পাশাপাশি উপ-রাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নাইডু, লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধনরাও প্রণববাবুকে শেষ শ্রদ্ধা জানান। প্রণববাবুকে শেষ শ্রদ্ধা জানান চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ (সিডিএস) জেনারেল বিপিন রাওয়াত, সেনাপ্রধান জেনারেল এম এম নারাভানে, বায়ুসেনা প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল আর কে এস ভাদুরিয়া এবং নৌপ্রধান চিফ অ্যাডমিরাল করমবীর সিং।

প্রণববাবুকে শেষ শ্রদ্ধা জানান প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। যে প্রণববাবুকে ‘স্যার’ বলে ডাকতেন। শেষ বিদায় জানান প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী, বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা গুলাম নবি আজাদরা।

নয়াদিল্লির বাসভবনে পড়ে গিয়ে মাথায় চোট পেয়েছিলেন প্রণববাবু। গত ১০ আগস্ট তাঁকে দিল্লির সেনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেদিনই জরুরি ভিত্তিতে তাঁর অস্ত্রোপচার হয়েছিল। তারপর থেকেই ভেন্টিলেশনে ছিলেন তিনি। কিন্তু তিন সপ্তাহের বেশি সময় ধরে লড়াইয়ে পর সোমবার (৩১ আগস্ট) বিকেলে হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তাঁর করোনাভাইরাস রিপোর্টও পজিটিভ এসেছিল। মঙ্গলবার (পহেলা সেপ্টেম্বর) দুপুর আড়াইটে নাগাদ দিল্লির লোধি রোড মহাশ্মশানে পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় প্রণববাবুর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.