সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২১

The Bangla Kagoj

আপনার কাগজ । banglakagoj.net

জেকেজিকাণ্ডে আদালতে অভিযোগপত্র দিয়েছে ডিবি

আরিফুল হক চৌধুরী ও ডা. সাবরিনা- ফাইল ফটো।

জেকেজিকাণ্ডে আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দিয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : জেকেজিকাণ্ডে আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দিয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

যাতে জেকেজি হেলথ কেয়ারে নভেল করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার নামে প্রতারণা ও জাল সনদ দেওয়ার অভিযোগের সত্যতা তুলে ধরা হয়েছে। আর প্রতারণায় সংশ্লিষ্ট থাকার বিষয়টি তদন্তে প্রমাণিত হওয়ায় প্রতিষ্ঠানটির দুই শীর্ষ কর্মকর্তা ডা. সাবরিনা ও আরিফুল চৌধুরী ছাড়াও আরও ছয়জনের নামে আদালতে চার্জশিট দেওয়া হয়েছে।

ডা. সাবরিনা সরকারি হাসপাতাল জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে চাকরি করার পরও তিনি জেকেজির চেয়ারম্যান ছিলেন আর তার স্বামী আরিফুল চৌধুরী ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী।

গত মাসে গ্রেপ্তার হওয়ার পর ওই দম্পতি কারাগারে রয়েছেন।

তদন্ত শেষ হওয়ায় বুধবার (৫ আগস্ট) ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সংশ্লিষ্ট জিআর শাখায় ডিবি পুলিশের পরিদর্শক লিয়াকত আলী চার্জশিট জমা দেন।

ডিবি পুলিশের দেওয়া চার্জশিটে ডা. সাবরিনা ও আরিফুল চৌধুরীকে প্রতারণার মূল হোতা উল্লেখ করা হয়েছে। ওই দুইজন ছাড়াও আরও ছয়জন হলেন- আবু সাঈদ চৌধুরী, হিমু, তানজিলা, বিপুল, শফিকুল ইসলাম রোমিও ও জেবুন্নেসা। তাঁদের বিরুদ্ধেও জালিয়াতি ও প্রতারণার অভিযোগ আনা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

চার্জশিটে জেকেজি হেলথ কেয়ারের কম্পিউটারে এক হাজার ৯৮৫টি ভুয়া রিপোর্ট ও ৩৪টি ভুয়া সনদ জব্দের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

এর আগে, গত ২৩ জুন জেকেজির সিইও আরিফসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করে তেজগাঁও থানা পুলিশ। ওই ঘটনায় তেজগাঁও থানায় প্রতারণা ও জাল জালিয়াতির অভিযোগে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করে।

মামলার তদন্তকালে জেকেজির চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনাকে গত ১২ জুলাই গ্রেপ্তার দেখায় তেজগাঁও থানা পুলিশ। এরপর তাঁরা কয়েক দফায় রিমান্ডে ছিলেন। রিমান্ড শেষে তাঁদের সিএমএম আদালতে পাঠানো হয়। বর্তমানে চার্জশিটভুক্তরা কারাগারে রয়েছেন।

Facebook Comments Box

Contact us

বাংলা কাগজ এ আপনাকে স্বাগতম।

X
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
Facebook91m
Twitter38m
LinkedIn4m
LinkedIn
Share