জুন ২২, ২০২১

The Bangla Kagoj

আপনার কাগজ । banglakagoj.net

ঐশ্বরিয়া ও আরাধ্যের পর এবার সুস্থ অমিতাভ

অমিতাভ বচ্চন (দাঁড়ানো বাম থেকে প্রথম), অভিষেক বচ্চন (দাঁড়ানো বাম থেকে দ্বিতীয়), ঐশ্বরিয়া রাই (দাঁড়ানো বাম থেকে তৃতীয়) ও আরাধ্য (বসা বাম থেকে দ্বিতীয়)- বাংলা কাগজ।

অবশেষে সুস্থ হয়েছেন ৭৭ বছর বয়সী বলিউড সুপারস্টা অমিতাভ বচ্চন। এর আগে সুস্থ হন পুত্রবধু ও নাতনি ঐশ্বরিয়া রাই ও আরাধ্য। তবে অমিতাভ বচ্চনের পুত্র অভিষেক বচ্চন এখনও পজেটিভ রয়েছেন।

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ (আপলোড ২ আগস্ট, আপডেটেড ৫ আগস্ট) : অবশেষে সুস্থ হয়েছেন ৭৭ বছর বয়সী বলিউড সুপারস্টার অমিতাভ বচ্চন। এর আগে সুস্থ হন পুত্রবধু ও নাতনি ঐশ্বরিয়া রাই ও আরাধ্য। তবে অমিতাভ বচ্চনের পুত্র অভিষেক বচ্চন এখনও পজেটিভ রয়েছেন।

জানা গেছে- ২২ দিন করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করে অবশেষে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন বলিউড সুপারস্টার অমিতাভ বচ্চন। রোববার (২ আগস্ট) দেওয়া এক টুইটে একথা জানান বিগ বি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়- অমিতাভ বচ্চন সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরলেও এখনও পুরোপুরি সংক্রমণ কাটে নি অভিষেক বচ্চনের।

গত ১১ জুলাই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন বচ্চন পরিবারের চার সদস্য— অমিতাভ বচ্চন, অভিষেক বচ্চন, ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন ও আরাধ্য বচ্চন। কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্তের পরই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন অমিতাভ ও অভিষেক।

শুরু থেকেই নিজের ও পরিবারের শারীরিক অবস্থার কথা টুইটে জানিয়ে আসছেন এই বলিউড সুপারস্টার।

অমিতাভ বলেন, ‘আমার কোভিড-১৯ নেগেটিভ শনাক্ত হয়েছে ও হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। আমি বাসায় কোয়ারান্টিনে ফিরে এসেছি। সর্বশক্তিমানের অনুগ্রহ, মা, বাবুজির আশীর্বাদ, নিকট ও প্রিয়জন এবং বন্ধুবান্ধব, ভক্তদের প্রার্থনা ও দোয়ায়; এছাড়াও নানাবতি হাসপাতালের চমৎকার যত্ন ও সেবার ফলে আমার পক্ষে এই দিনটি দেখা সম্ভব হয়েছে।’

বিজ্ঞাপন

বাবার সুস্থ হওয়ার খবর টুইটে জানানোর পাশাপাশি নিজের শারীরিক অবস্থার কথাও জানিয়েছেন অভিষেক। তিনি বলেন, ‘দুর্ভাগ্যক্রমে আমি এখনো কোভিড-১৯ পজিটিভ আছি। হাসপাতালে আছি। আমার পরিবারের জন্য আপনার অবিচ্ছিন্ন শুভেচ্ছা এবং প্রার্থনার জন্য সকলকে ধন্যবাদ।’

করোনা শনাক্তের পর প্রাথমিকভাবে মুম্বাইয়ের বাড়িতেই আইসোলেশনে ছিলেন ৪৬ বছর বয়সী সাবেক বিশ্ব সুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন ও তার আট বছরের মেয়ে আরাধ্য। গত ১৭ জুলাই রাতে শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে তাঁদেরকেও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে গত ২৭ জুলাই করোনা থেকে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছাড়েন ঐশ্বরিয়া রাই ও আরাধ্য।

Facebook Comments Box

Call Now ButtonContact us

বাংলা কাগজ এ আপনাকে স্বাগতম।

X
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
Facebook91m
Twitter38m
LinkedIn4m
LinkedIn
Share