মানুষ বাঁচাতে কুমিল্লা থেকে ঢাকায় ওঁরা ৫৬ জন

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে ওষ্ঠাগত মানুষ। থমকে গেছে সবকিছু। প্রতিদিন মৃত্যুর মিছিলে যুক্ত হচ্ছেন অসংখ্যজন। চেষ্টা চলছে মানবজাতিকে রক্ষায় কার্যকর কোনও প্রতিষেধক আনার। কিন্তু এ পর্যন্ত চূড়ান্ত কোনও সফলতা মেলে নি। দেখা হয় নি ভাগ্যের রেখা।

এমন অবস্থায় বিজ্ঞানীরা বলছেন, করোনায় আক্রান্ত হয়ে সেরে উঠা রোগীর প্লাজমা (রক্তরস) অন্য রোগীকে সারিয়ে তুলতে সাহায্য করে। অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও চলছে সেই চিকিৎসা পদ্ধতির প্রয়োগ।

আর তাই করোনা থেকে সেরে উঠা পুলিশ সদস্যরা অন্যদের জীবন রক্ষায় এগিয়ে আসছেন। এরই অংশ হিসেবে কুমিল্লা থেকে ৫৬ জন পুলিশ সদস্য শনিবার (২৫ জুলাই) ঢাকায় যান প্লাজমা দিতে। এর আগেও এই কুমিল্লা থেকে বেশকিছু পুলিশ সদস্য ঢাকায় গিয়ে প্লাজমা দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে- ‘করোনায় জয়ী পুলিশের প্লাজমায়, বাঁচুক অন্যের জীবন; জাগ্রত মানবতায় দৃঢ় হউক, পুলিশ জনতার বন্ধন।’- এই স্লোগানকে ধারণ করে করোনা জয়ী ওই ৫৬ জন পুলিশ সদস্য ঢাকায় এসেছেন। পুলিশের একটি বাসযোগে শনিবার দুপুরে তাঁরা ঢাকার উদ্দেশে কুমিল্লা পুলিশ লাইন ছাড়েন।

তবে এ উপলক্ষে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। যেখানে বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম। এ সময় জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন। পরে ওই ৫৬ জনকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান পুলিশ সুপার।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ৯ জুলাই একই জেলার ২৭ জন পুলিশ সদস্য প্লাজমা ঢাকায় গিয়ে প্লাজমা দেন। অর্থাৎ কুমিল্লা জেলারই সর্বোচ্চ সংখ্যক ৮৩ জন পুলিশ সদস্য প্লাজমা দান করেন। করোনার মহামারির মধ্যে নিজেদের দায়িত্ব পালন করতে এই জেলায় ২০৮ জন পুলিশ সদস্য সংক্রমিত হয়েছেন।

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.