ডিসেম্বর ৯, ২০২১

The Bangla Kagoj

বিশ্বের সব দেশে, সব ভাষায়, সব সময় । বাংলা কাগজ । আপনার কাগজ । banglakagoj.net (আমাদের কোনও জাতীয় পত্রিকা নেই)।

গণমাধ্যমে প্রতিবেদন : অবশেষে নকল মাস্ক সরবরাহের অভিযোগে অপরাজিতার শারমিনের বিরুদ্ধে মামলা

শারমিন জাহান- বাংলা কাগজ।

নকল মাস্ক সরবরাহের অভিযোগে অবশেষে মামলা করা হয়েছে অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনালের বিরুদ্ধে। প্রতিষ্ঠানটির সত্বাধিকারি শারমিন জাহানের বিরুদ্ধে এ মামলা করেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার (২৪ জুলাই) বিকেলে এ মামলা দায়ের করা হয়। এর আগে অপরাজিতার নকল মাস্ক নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে স্ট্যাটাস দেন হাসপাতালটির একজন চিকিৎসক। ওই স্ট্যাটাসের সূত্র ধরে ইতোমধ্যে গণমাধ্যমে সংবাদও প্রকাশিত হয়েছে।

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : নকল মাস্ক সরবরাহের অভিযোগে অবশেষে মামলা করা হয়েছে অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনালের বিরুদ্ধে। প্রতিষ্ঠানটির সত্বাধিকারি শারমিন জাহানের বিরুদ্ধে এ মামলা করেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার (২৪ জুলাই) বিকেলে এ মামলা দায়ের করা হয়। এর আগে অপরাজিতার নকল মাস্ক নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে স্ট্যাটাস দেন হাসপাতালটির একজন চিকিৎসক। ওই স্ট্যাটাসের সূত্র ধরে ইতোমধ্যে গণমাধ্যমে সংবাদও প্রকাশিত হয়েছে।

শুক্রবার হওয়া মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে- গত ৪ জুলাই থেকে বিএসএমএমইউতে করোনা রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া শুরু হয়। সেখানে রোগীদের সেবায় নিয়োজিত চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য উন্নতমানের এন-৯৫ মাস্ক দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

পরে গত ২৭ জুন শারমিন জাহানের অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনালসহ আরও একটি প্রতিষ্ঠানকে মাস্ক সরবরাহের জন্য অনুমতি দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনাল ১১ হাজার মাস্ক দেওয়ার জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়ে প্রথম দফায় ৩০ জুন এক হাজার ৩শ, দ্বিতীয় দফায় ২ জুলাই ৪৬০, তৃতীয় দফায় ১২ জুলাই এক হাজার এবং সবশেষ ১৩ জুলাই ৭শ মাস্ক সরবরাহ করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাসপাতালে।

অভিযোগ থেকে জানা যায়, প্রথম দুই দফার মাস্কের মান ঠিক থাকলেও পরের দুই দফায় দেওয়া মাস্কে অসঙ্গতি পায় বিএসএমএমইউ কর্তৃপক্ষ। যেখানে মাস্কগুলোতে ধরা পড়ে ছেঁড়া ফিতা, লট নম্বর না থাকা ও ইংরেজি বানানে ভুল।

বিষয়টি দায়িত্বরত চিকিৎসকদের নজরে আসার পর ‘অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনাল’কে কারণ দর্শানোর নোটিশ (শোকজ) দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। গঠন করা হয় তিন সদস্যের কমিটি।

বিজ্ঞাপন

বিএসএমএমইউ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জুলফিকার আহমেদ আমিন বলেন, বৃহস্পতিবার শাহবাগ থানায় আমরা অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনালের বিরুদ্ধে জালিয়াতির মামলা করেছি। শর্ত অনুযায়ী তাঁদের যে মাস্ক ও গ্লাভস সরবরাহের কথা ছিল সেগুলো তাঁরা দেয়নি।

অপরাজিতার সঙ্গে বিএসএমএমইউয়ের চুক্তি অটোমেটিক বাতিল হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এ ব্যাপারে বিএসএমএমইউ’র এক চিকিৎসক বাংলা কাগজকে জানান, এ পর্যন্ত অপরাজিতার কাছ থেকে অন্তত ৮০ লাখ টাকার মাস্ক নিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

Facebook Comments Box

Contact us

বাংলা কাগজ এ আপনাকে স্বাগতম।

X
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
Facebook91m
Twitter38m
LinkedIn4m
LinkedIn
Share