আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে শাহেদের ‘ডানহাত’ তরিক শিবলী

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে রিজেন্ট হাসপাতালের সত্বাধিকারি ও রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. শাহেদের ‘ডানহাত’ তরিক শিবলী।

দুই দফায় ১২ দিনের রিমান্ড শেষে শুক্রবার (২৪ জুলাই) শিবলীকে আদালতে হাজির করলে এ স্বীকারোক্তি দেয় সে। এ সময় তাঁকে আদালতে হাজির করে মামলার তদন্তভারপ্রাপ্ত সংস্থা- র‌্যাব।

আদালত সূত্র জানায়- আদালতে হাজির করার পর শিবলী ১৬৪ ধারায় স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে সম্মত হওয়ায় তা রেকর্ড করার আবেদন করা হয়। ঢাকা মহানগর হাকিম মামুনুর রশীদ খাস কামরায় তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

আদালত পুলিশের সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তা এসআই জালাল আহমেদ বলেন, শিবলী তাদের অপকর্মে নিজেকে এবং হাসপাতালের মালিক শাহেদের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত ৬ জুলাই রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুর শাখায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম। অভিযানে করোনাভাইরাস পরীক্ষার ভুয়া রিপোর্ট, চিকিৎসার নামে রোগীদের কাছ থেকে অর্থ আদায়সহ নানা অনিয়মের তথ্যপ্রমাণ মেলে। পরে সেখান থেকে আটজনকে আটক করে র‌্যাব হেফাজতে নেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

পরদিন রিজেন্ট হাসপাতালের দুটি শাখাই সিলগালা করে দেওয়া হয়। সন্ধ্যায় ওই হাসপাতালের কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দেয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

ওইদিন (৭ জুলাই) রাতে উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি মামলা দায়ের করে র‌্যাব। মামলায় হাসপাতালের মালিক মো. শাহেদসহ ১৭ জনকে আসামি করা হয়।

পরে গত ৮ জুলাই রাতে নাখালপাড়া থেকে তরিক শিবলীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আরও উল্লেখ করা যেতে পারে- ইতোমধ্যে মো. শাহেদের নামে অস্ত্র আইনেও মামলা হয়েছে। আর প্রতারণার অভিযোগ আসছে একের পর এক।

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.