জুন ২২, ২০২১

The Bangla Kagoj

আপনার কাগজ । banglakagoj.net

সকল অনিয়মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের হুঁশিয়ারি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের

ওবায়দুল কাদের।

সকল খাতেই সংগঠিত অনিয়মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : সকল খাতেই সংগঠিত অনিয়মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, স্বাস্থ্য খাতে যে শুদ্ধি অভিযান শুরু হয়েছে, তা পর্যায়ক্রমে তৃণমূলে ছড়িয়ে পড়বে।

আওয়ামী লীগের এ সাধারণ সম্পাদক বলেন- অভিযান চলবে অনিয়মের আবর্তে থাকা অন্যান্য খাতেও। কেহই জবাবদিহির ঊর্ধ্বে নয়, দলীয় পরিচয় দিয়ে অনিয়ম ঢাকা যাবেনা।’

বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস উপলক্ষে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত আলোচনা সভায় তাঁর (ওবায়দুল কাদের) সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন কাদের।

তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনা জনগনের মনের ভাষা বুঝেন, তাঁর কাছে কোনও অপরাধীর ছাড় নেই। আসুন আমরা নিজের বিবেকের কাছে নিজে পরিশুদ্ধ থাকি, জবাবদিহি করি। অসহায় মানুষের হক নষ্ট না করে তাঁদের পাশে দাঁড়াই। তবেই প্রতিষ্ঠিত হবে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা, শেখ হাসিনার সমৃদ্ধ বাংলাদেশ।’

ওয়ান ইলেভেনের সময় শেখ হাসিনার করাবন্দি হওয়ার প্রসঙ্গ টেনে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের আস্থার প্রতীক শেখ হাসিনাকে ২০০৭ সালের এই দিনে সেনাসমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার জনগণের অধিকার আদায়ের কণ্ঠস্বরকে অবরুদ্ধ করেছিল। তিনি ১১ মাস কারাবন্দি ছিলেন। আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের প্রতিরোধ আন্দোলনের মধ্য দিয়ে ২০০৮ সালের ১০ জুন তিনি কারা মুক্ত হন।’

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘পিতা মুজিবের পথ অনুসরণ করে মানুষের জন্য যেকোনও ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত মানুষের আশার প্রদীপ শেখ হাসিনা এ দেশের মানুষের মুখে হাঁসি ফোটাতে ও অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে এবং দেশকে সমৃদ্ধির সোপানের শীর্ষস্থানে পৌঁছাতে তাঁর নিরলস প্রয়াস আজ বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত, সমাদৃত। বারবার মৃত্যুর কাছ থেকে ফিরে আসা মৃত্যুঞ্জয়ী বীর ধ্বংস্তূপের পাশ থেকে যিনি সৃষ্টির পতাকা উড়ান, সঙ্কটকে রূপদেন অসীম সম্ভাবনায়।’

আওয়ামী লীগের এ সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, সেদিন শেখ হাসিনাকে বন্দি করে যারা রাজনীতি থেকে মাইনাস করতে চেয়েছিল, রাজনীতিকদের হাত থেকে জনমানুষের মুক্তির লড়াই রূদ্ধ করতে চেয়েছিল, এগার মাসে তাঁরা বুঝে নিয়েছিল মুক্ত শেখ হাসিনার চেয়ে বরং বন্দী শেখ হাসিনাই অধিক শক্তিশালী ছিল।

এ সময় আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আবদুর রহমান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহা উদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বি এম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম ও এস এম কামাল হোসেন, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর এবং দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন।

Facebook Comments Box

Call Now ButtonContact us

বাংলা কাগজ এ আপনাকে স্বাগতম।

X
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
Facebook91m
Twitter38m
LinkedIn4m
LinkedIn
Share