ডিসেম্বর ৯, ২০২১

The Bangla Kagoj

বিশ্বের সব দেশে, সব ভাষায়, সব সময় । বাংলা কাগজ । আপনার কাগজ । banglakagoj.net (আমাদের কোনও জাতীয় পত্রিকা নেই)।

ঢাকা, চট্টগ্রাম, কুমিল্লা ও সাতক্ষীরায় আত্মগোপনে ছিলেন সাহেদ : র‌্যাব

সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব মহাপরিচালক আবদুল্লাহ আল মামুন।

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : ‘ঢাকা, চট্টগ্রাম, কুমিল্লা ও সাতক্ষীরায় বিভিন্ন সময়ে আত্মগোপনে ছিলেন সাহেদ।’- এমন মন্তব্য করেছে র‍্যাব। বুধবার (১৫ জুলাই) বেলা তিনটায় র‍্যাবের কার্যালয়ে সম্মেলনে এমন মন্তব্য করা হয়।

এর আগে একইদিন ভোরে সাতক্ষীরা থেকে সাহেদকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে হেলিকপ্টারযোগে তাঁকে ঢাকায় আনা হয়। সকাল নয়টায় ঢাকায় পৌঁছার পর তাঁকে র‍্যাবের হেডকোয়ার্টারে নিয়ে যাওয়া হয়। যাওয়া হয় উত্তরায় তাঁর কার্যালয়ে। সবশেষ তিনটায় সংবাদ সম্মেলন করে র‍্যাব।

সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাবের মহাপরিচালক আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, প্যাথলজির অনুমোদন নিয়ে হাসপাতাল পরিচালনা করছিলেন সাহেদ। তিনি (সাহেদ) অত্যন্ত ধুরন্ধর একজন ব্যক্তি।

‘আপনারা সাহেদের কাছাকাছি পৌঁছার পর এত তথ্য জেনেও এতদিন তাঁকে কেন গ্রেপ্তার করতে পারেন নি’- এমন প্রশ্নের জবাবে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) সাবেক এ প্রধান বলেন- আসলে যখনই আমরা পিন পয়েন্টে পৌঁছাতে সক্ষম হয়েছি, তখনই আমরা তাঁকে ধরতে সক্ষম হয়েছি। এর আগে হয়তো আমরা সব তথ্য জানতে পারি নি।

এর আগে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক আশিক বিল্লাহ জানান, বুধবার (১৫ জুলাই) ভোর ৫টা ১০ মিনিটে সাতক্ষীরার সীমান্তের দেবহাটা থানার সাকড় বাজারের পাশে অবস্থিত লবঙ্গপতি এলাকার সীমান্তের শূন্য পয়েন্টের কাছ থেকে নৌকার মধ্যে থাকা সাহেদকে গ্রেপ্তার করা হয়।

করোনাভাইরাস পরীক্ষার ভুয়া প্রতিবেদন দেওয়ার অভিযোগে গত ৬ জুলাই উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালে অভিযান চালায় র‍্যাব। এরপর রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুর শাখা সিলগালা করে দেওয়া হয়। ৭ জুলাই করোনা পরীক্ষা না করেই সার্টিফিকেট প্রদানসহ বিভিন্ন অভিযোগে রিজেন্ট হাসপাতালের বিরুদ্ধে উত্তরা পশ্চিম থানায় মামলা করা হয়।

বিজ্ঞাপন

মামলায় রিজেন্ট হাসপাতালের সত্ত্বাধিকারি মো. সাহেদকে প্রধান আসামি করে ১৭ জনের নাম উল্লেখ করা হয়।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মাসুদ পারভেজ (৪০), অ্যাডমিন আহসান হাবীব (৪৫), এক্সরে টেকনিশিয়ান হাসান (৪৯), মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট হাকিম আলী (২৫), রিসিপশনিস্ট কামরুল ইসলাম (৩৫), রিজেন্ট গ্রুপের প্রজেক্ট অ্যাডমিন রাকিবুল ইসলাম (৩৯), রিজেন্ট গ্রুপের এইচআর অ্যাডমিন অমিত অনিক (৩৩), গাড়িচালক আব্দুস সালাম (২৫), নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুর রশীদ খান জুয়েল (২৮), হাসপাতালের কর্মচারী তরিকুল ইসলাম (৩৩), স্টাফ আব্দুর রশিদ খান (২৯), স্টাফ শিমুল পারভেজ (২৫), কর্মচারী দীপায়ন বসু (৩২) এবং মাহবুব (৩৮)।

Facebook Comments Box

Contact us

বাংলা কাগজ এ আপনাকে স্বাগতম।

X
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
Facebook91m
Twitter38m
LinkedIn4m
LinkedIn
Share