আজ সাংবাদিক লাবলুর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : আজ সাংবাদিক সৈয়দ আখতারুজ্জামান সিদ্দিকী লাবলুর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী। তিনি বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) সাবেক সভাপতি ছিলেন।

বহু গুণের অধিকারী আখতারুজ্জামান লাবলু স্বল্প সময়ে নিজেকে একজন সফল সাংবাদিক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। এর বাইরে নিজের সারাজীবন ব্যয় করেছেন সাংবাদিকদের কল্যাণে।

একজন দক্ষ সংগঠক হিসেবে অপরাধ বিষয়ক প্রতিবেদকদের সংগঠন ক্র্যাব গঠনেও তার ভূমিকা ছিলো অন্যতম। বন্ধুসুলভ আচরণের জন্য সকলের কাছেই ছিলেন সমান জনপ্রিয়। যে কোনো মানুষের বিপদে সাধ্যমতো তাৎক্ষনিক ঝাপিয়ে পড়ার মানসিকতা ছিল লাবলুর অন্যতম গুণ। লাবলুর অকালে চলে যাওয়া সাংবাদিক সমাজের অপূরণীয় ক্ষতি হিসেবে মনে করেন সহকর্মীরা।

সাংবাদিক আখতারুজ্জামান লাবলুর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেছেন বাংলা কাগজ’র সম্পাদক কালাম আঝাদ। তিনি বলেন, সাংবাদিকতায় একজন নিবেদিত প্রাণ মানুষ ছিলেন লাবলু। তার অকালে চলে যাওয়া সাংবাদিক সমাজের অপূরণীয় ক্ষতি।

বিজ্ঞাপন

২০১৯ সালের ৮ জুলাই রাত ১০টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সৈয়দ আখতারুজ্জামান সিদ্দিকী লাবলু। তিনি দীর্ঘদিন ধরে লিভার ক্যান্সারে ভুগছিলেন।

আখতারুজ্জামান লাবলু ২০০৪ সালে স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে ভোরের কাগজে যোগ দেন। এরপর প্রধান অপরাধ বিষয়ক প্রতিবেদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৩ সালে ভোরের কাগজের প্রধান প্রতিবেদক হিসেবে দায়িত্ব নেন। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত এ পদেই ছিলেন তিনি।

লাবলু ৮০- এর দশকের শেষ দিকে কৃষাণ পত্রিকার মাধ্যমে সাংবাদিকতা শুরু করা মরহুম লাবলু বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম এর সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট আবাদুজ্জামান শিমুল’র বড় ভাই। কৃষাণ পত্রিকার পর দৈনিক সমাচার ও অনলাইন পোর্টাল বিএনএসে (বাংলাদেশ নিউজ সার্ভিস) কাজ করেছিলেন। ২০০৯ সালে ক্র্যাব সভাপতি নির্বাচিত হন তিনি। এরপর একই পদে ২০১০, ১২, ১৩, ১৪ ও ১৬ সালে মোট ছয়বার সভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.