মে ১৩, ২০২১

Bangla Kagoj । News from Bangladesh, World and Universe at any Language

বাংলা ভাষাসহ পৃথিবির সব ভাষায় সর্বশেষ ও প্রধান খবর, বিশেষ প্রতিবেদন, সম্পাদকীয়, পাঠকমত, খেলাধুলা ও বিনোদনসহ সব প্রান্তের গুরুত্বপূর্ণ সকল খবর।

প্রাচ্যের অক্সফোর্ড ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পহেলা জুলাই

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হল।

করোনাভাইরাসের পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ স্বল্পপরিসরে দিবসটি উদযাপন করছে। এ উপলক্ষে সংক্ষিপ্ত কর্মসূচিও গ্রহণ করা হয়েছে।

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : প্রাচ্যের অক্সফোর্ডখ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পহেলা জুলাই (বুধবার)। প্রতিষ্ঠার দিনটিকে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস’ হিসেবে পালন করে থাকে। ১৯২১ সালের এই দিনে দেশের প্রাচীনতম এই বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়।

করোনাভাইরাসের পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ স্বল্পপরিসরে দিবসটি উদযাপন করছে। এ উপলক্ষে সংক্ষিপ্ত কর্মসূচিও গ্রহণ করা হয়েছে।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- সকাল সাড়ে ১০টায় নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবন প্রাঙ্গণে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে জাতীয় পতাকা, বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলন ও বেলুন উড়ানো এবং সকাল ১১টায় অধ্যাপক আবদুল মতিন চৌধুরী ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনলাইন ভার্চুয়াল মিটিং প্ল্যাটফর্ম জুমের মাধ্যমে আলোচনা সভা।

আলোচনা সভায় জাতীয় অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম সংযুক্ত হয়ে ‘শতবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রসঙ্গ : আন্দোলন ও সংগ্রাম’ শীর্ষক মূল বক্তব্য প্রদান করবেন।

এছাড়া অনলাইন অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (প্রশাসন), প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (শিক্ষা), কোষাধ্যক্ষ, প্রাক্তন দু’জন উপাচার্য, দু’জন ডিন, দু’জন প্রভোস্ট, একজন রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট, ঢাবি অ্যালামনাই এসোসিয়েশনের সভাপতি এবং ঢাবি শিক্ষক সমিতিসহ অন্যান্য সমিতির পক্ষ থেকে নেতৃবৃন্দ সংযুক্ত হবেন।

বিজ্ঞাপন

বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান শুভেচ্ছা বাণী প্রদান করেছেন।

Facebook Comments Box

Contact us

বাংলা কাগজ এ আপনাকে স্বাগতম।

X
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
Facebook91m
Twitter38m
LinkedIn4m
LinkedIn
Share