এবার চলে গেলেন সাবেক মেয়র কামরান

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : মেঘের ঘনঘটা যেন দিনদিন বাড়ছে। সেই ঘনঘটায় এবার যুক্ত হলেন সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যনির্বাহী কমিটির এ সদস্য রোববার (১৪ জুন) দিবাগত রাত পৌনে ৩টার দিকে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

পরে ভোররাত সাড়ে তিনটার দিকে বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের এপিএস বদরুল ইসলাম বাংলা কাগজকে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

বিজ্ঞাপন

বদরুল ইসলাম বলেন, স্যার পৌনে ৩টার (২টা ৪৫ মিনিট) দিকে মারা গেছেন।

প্রসঙ্গত, গত ৫ জুন সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজের পিসিআর ল্যাবে কামরানের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে। ওইদিন রাত থেকে প্রথমে বাসায় আইসোলেশনে রাখা হলেও ৬ জুন সকালে বমি আর জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। তবে বমি ও জ্বর কিছুটা নিয়ন্ত্রণে থাকলেও অবস্থার তেমন কোনও পরিবর্তন হয় নি। পরে অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় রোববার (৭ জুন) সন্ধ্যায় ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।চিকিৎসকরা প্রাথমিক পর্যবেক্ষণে তাঁকে প্লাজমা থেরাপি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। তাঁর দেহে করোনাজয়ী কারো ‘এ’ পজিটিভ রক্তের সংগৃহীত প্লাজমা থেরাপিও দেওয়া হয়। তাঁর স্বজনরা জানান, হাসপাতালে প্লাজমা থেরাপি দেওয়ার পর পরই বদর উদ্দিন আহমদ কামরান কিছুটা সুস্থ হয়ে ওঠেন। রোববার মধ্যরাতে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ার পর তিনি মারা যান। এর আগে, গত ২৭ মে কামরানের স্ত্রী আসমা কামরানেরও করোনা পজেটিভ ধরা পড়ে। তিনি বর্তমানে নিজ বাসায় আইসোলেশনে রয়েছেন।

Facebook Comments Box

Leave a Reply

Your email address will not be published.