Category: বিদেশ

করোনাভাইরাস : টিকা উৎপাদন ব্যাপক হারে বাড়াবে ভারত

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : করোনাভাইরাস প্রতিরোধে নিজেদের উদ্ভাবিত কোভ্যাক্সিন টিকার উৎপাদন ১০ গুণ বাড়ানোর কথা জানিয়েছে ভারত।

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) দেশটির বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সেপ্টেম্বর নাগাদ ১০ কোটি ডোজ টিকা উৎপাদনের লক্ষ্য অর্জনের পরিকল্পনা করেছে।

মন্ত্রণালয়ের বরাতে বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, বর্তমানে কোভ্যাক্সিন-এর উৎপাদক প্রতিষ্ঠান ভারত বায়োটেকের মাসিক উৎপাদন ক্ষমতা এক কোটি ডোজ। সেপ্টেম্বর নাগাদ এর উৎপাদন সক্ষমতা ১০ গুণ বাড়ানোর লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

কোভিড-১৯ মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউ সামলাতে বেশ বেগ পেতে হচ্ছে বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ জনবহুল দেশটিকে। গত কয়েক সপ্তাহে রেকর্ড পরিমাণ সংক্রমণের মধ্যেই করোনাভাইরাসের টিকার ঘাটতিতে পড়েছে ভারত। এ কারণে দেশের বিভিন্ন রাজ্যে টিকাদান কার্যক্রমের গতি কমে গেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এখন টিকা আমদানিরও উদ্যোগ নিতে যাচ্ছে নয়াদিল্লি।

ভারতের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ‘নিজস্ব প্রযুক্তিতে উদ্ভাবিত কোভ্যাক্সিন-এর বর্তমান উৎপাদন সক্ষমতা এ বছরের মে-জুন নাগাদ দ্বিগুণ করা হবে এবং জুলাই-আগস্টের মধ্যে তা ৬-৭ গুণ বাড়ানো হবে।’

মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়েছে, কোভ্যাক্সিনের উৎপাদন সক্ষমতা বাড়াতে সরকার ১ কোটি ৭০ লাখ ডলারের তহবিলের যোগান দেবে।

ভারত বায়োটেক ছাড়াও রাষ্ট্রীয় আরও দুটি প্রতিষ্ঠান হাফকিন বায়োফার্মাসিউটিক্যাল এবং ইন্ডিয়ান ইমিউনোলজিক্যালস লিমিটেড যাতে সামনের মাসগুলোতে সমন্বিতভাবে টিকার মাসিক উৎপাদন সক্ষমতা সাড়ে ৩ কোটি ডোজ পর্যন্ত উন্নীত করতে পারে সে পরিকল্পনাও নেওয়া হয়েছে।

মহামারির দ্বিতীয় ঢেউয়ের মধ্যেই ৫ এপ্রিল ভারতে দৈনিক টিকাদানের পরিমাণ ৪৫ লাখে পৌঁছোয়। কিন্তু এরপর থেকে সেটা কমে গড়ে ৩০ লাখে নেমে এসেছে বলে জানা গেছে টিকাদান কার্যক্রমের সমন্বয়কারি সরকারি প্রতিষ্ঠান কো-উইনের ওয়েবসাইট থেকে।

অক্সফোর্ড-অ্যাট্রাজেনেকা উদ্ভাবিত কোভিশিল্ড টিকার ভারতীয় উৎপাদক সেরাম ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়ার (এসআইআই) এর উৎপাদিত টিকাই মূলত এ পর্যন্ত ভারতের সিংহভাগ জনগোষ্ঠীকে দেওয়া হয়েছে। সে দেশে যে ১১ কোটি ৫৫ লাখ ডোজ টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে, তার ৯১ শতাংশই সেরাম ইনস্টিটিউটের টিকা।

কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের সরবরাহ-নিষেধাজ্ঞার কারণে কাঁচামালের ঘাটতি হওয়ায় বিশ্বের সবচেয়ে বড় টিকা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানটির উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে।

মজুদ টিকায় ৯ দিন চলবে : এদিকে সেরাম ইনস্টিটিউটের প্রধান নির্বাহি আদার পুনাওয়ালা সরাসরি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের কাছে আবেদন জানিয়েছেন টিকার কাঁচামালের ওপর থেকে সরবরাহ নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার জন্য, যে সিদ্ধান্ত মূলত যুক্তরাষ্ট্রের টিকা উৎপাদনকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর স্বার্থ বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে।

এক টুইটে পুনাওয়ালা লিখেছেন, ‘… এই ভাইরাসটি মোকাবিলায় আমাদের যদি সত্যিই একতাবদ্ধ থাকতে হয়, যুক্তরাষ্ট্রের বাইরের টিকা উৎপাদন খাতের পক্ষ থেকে, আমি আপনার (প্রেসিডেন্ট বাইডেন) কাছে বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি কাঁচামাল রপ্তানিতে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের জন্য, যাতে টিকার উৎপাদন ত্বরান্বিত করা যায়।’

এ মাসে সর্বোচ্চ সংখ্যক মানুষ কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ভারতে। সবমিলিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৪৩ লাখ, যা যুক্তরাষ্ট্রের পরে বিশ্বে সর্বোচ্চ। ভারতে এই রোগে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ১ লাখ ৭৪ হাজার ৩০৮ জন।

টিকার উৎপাদনে টান পড়ায় ভারতের অনেক টিকাদান কেন্দ্রে রেশনিং করতে হচ্ছে, যদিও তারা শুধু ৪৫ বছরের বেশি বয়স্কদেরই টিকার আওতায় এনেছে।

যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের পর জনগণের মধ্যে সবচেয়ে বেশি টিকার ডোজ প্রয়োগ করেছে ভারত, তবে মাথাপিছু হারের বিচারে তারা অনেকটাই পিছিয়ে।

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) ভারতের সরকার জানিয়েছে, তাদের কাছে বর্তমানে দুই কোটি ৬৭ লাখ ডোজ টিকার মজুদ আছে। গত সপ্তাহে যে হারে টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে, তা বিবেচনায় নিলে এই মজুদ দিয়ে নয়দিন পর্যন্ত চলতে পারে।

জরুরি ব্যবহারের জন্য এই সপ্তাহে রাশিয়ার উদ্ভাবিত ‘স্পুৎনিক ফাইভ’ টিকার অনুমোদন দিয়েছে নয়াদিল্লি এবং তা আমদানিরও উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এই মাসে আমদানি শুরু হলে সোয়া এক কোটি ভারতীয়কে টিকাদানের আওতায় আনা যাবে বলে জানিয়েছে সরকার। টিকা কিনতে ফাইজার, মডার্না এবং জনসন অ্যান্ড জনসনের কাছেও আবেদন জানিয়েছে ভারত।

৯/১১’র মধ্যে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তাঁর দেশের সেনারা চলতি বছরের ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যেই আফগানিস্তান ছাড়বে বলে ঘোষণা দিতে যাচ্ছেন।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) তিনি ঘোষণাটি দেবেন বলে মার্কিন গণমাধ্যমগুলোর বরাত দিয়ে জানিয়েছে বিবিসি।

যুক্তরাষ্ট্র এর আগে চলতি বছরের ১ মে’র মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহারের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলো।

তালেবানকে দেওয়া ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের ওই প্রতিশ্রুতি পূরণ ‘কষ্টকর’ হবে বলে বাইডেন আগেই জানিয়েছিলেন।

ওয়াশিংটন এবার সেনা প্রত্যাহারের শেষদিন হিসেবে ৯/১১ কে বেছে নিয়েছে। ২০ বছর আগে এই দিনেই পেন্টাগন ও ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে ভয়াবহ সন্ত্রাসি হামলা হয়েছিলো।

যুক্তরাষ্ট্র এবং সামরিক জোট নেটোর কর্মকর্তারা বলছেন, আফগানিস্তানে সহিংসতা কমানোর ক্ষেত্রে তালেবানরা এখন পর্যন্ত তাদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি রাখতে পারে নি।

তবে সেনা প্রত্যাহারের সময়কালে তালেবানরা যদি মার্কিন বাহিনির ওপর হামলা চালায় তাহলে কট্টরপন্থি এ সশস্ত্র গোষ্ঠী ‘জোরালো প্রতিক্রিয়া’ দেখবে বলে সতর্ক করেছেন বাইডেন প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা।

এদিকে তালেবানরা জানিয়েছে, আফগানিস্তান থেকে সব বিদেশি সেনা প্রত্যাহারের আগে তারা আফগানিস্তান নিয়ে কোনও সম্মেলনে যোগ দেবে না।

তুরস্কে আগামি মাসে আফগানিস্তানের ভবিষ্যৎ নিয়ে একটি সম্মেলনটি হওয়ার কথা। তালেবানরা অংশ না নিলে ওই সম্মেলন নাও হতে পারে।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) বাইডেনের ঘোষণার দিনই ব্রাসেলসে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিংকেন এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন নেটো মিত্রদের কাছে আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহারে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থানের বিষয়টি সবিস্তারে বলবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আফগানিস্তানে ২০ বছর ধরে চলা যুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের ট্রিলিয়ন ট্রিলিয়ন ডলার খরচ হয়েছে, প্রাণ গেছে ২ হাজারের বেশি মার্কিন সেনার। ওয়াশিংটন এখন এই যুদ্ধ থেকে সরে এসে ‘সত্যিকারের হুমকিগুলোর’ দিকে মনোযোগ দিতে চায় বলে মত বিশ্লেষকদের।

জন কেরি : রোহিঙ্গাদের দায়িত্ব শুধু বাংলাদেশের নয়

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : রোহিঙ্গাদের দায়িত্ব শুধু বাংলাদেশের নয়। আর এই ইস্যুতে মিয়ানমারের ওপর জো বাইডেন প্রশাসন চাপ অব্যাহত রেখেছে বলেই জানিয়েছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের জলবায়ু বিষয়ক বিশেষ দূত ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি।

শুক্রবার (৯ এপ্রিল) রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় যৌথ সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে বৈঠক করেন জন কেরি। বৈঠক শেষে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্নের উত্তরে জন কেরি বলেন, বাংলাদেশ সরকার রোহিঙ্গাদের প্রতি খুব সদয়। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের সরকার রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছে। এজন্য বাংলাদেশকে ধন্যবাদ।

‘রোহিঙ্গাদের দায়িত্ব শুধু বাংলাদেশের নয়, এই দায়িত্ব জাতিসংঘেরও। সবারই এই ইস্যুতে ভূমিকা নিতে হবে।’

শুক্রবার (৯ এপ্রিল) সকালে দিল্লি থেকে বিশেষ প্লেনে জন কেরি ঢাকায় আসেন। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছালে তাঁকে স্বাগত জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে (আবুল কালাম) আব্দুল মোমেন।

এ সময় ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার উপস্থিত ছিলেন। দুপুরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে বৈঠক করেন। বিকেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গেও বৈঠক করবেন।

জো বাইডেনের জলবায়ু বিষয়ক বিশেষ দূত জন কেরি আগামি ২২-২৩ এপ্রিল যুক্তরাষ্ট্রে ক্লাইমেট ইস্যুতে একটি সম্মেলনের দাওয়াত দিতে ঢাকায় এসেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে তিনি জো বাইডেনের পক্ষ থেকে এই সম্মেলনে অংশ নেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানাবেন।

যুক্তরাষ্ট্রে ৪০টি দেশের রাষ্ট্র বা সরকারপ্রধানের অংশগ্রহণে ভার্চুয়াল মাধ্যমে এই জলবায়ু সম্মেলন আয়োজন করা হবে।

এতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে স্বশরিরে আমন্ত্রণপত্র নিয়ে এসেছেন জন কেরি। শুক্রবার (৯ এপ্রিল) বিকেলে তাঁর ঢাকা ত্যাগ করার কথা রয়েছে।

কাশ্মীরে নিরাপত্তা বাহিনির গুলিতে ৪ জঙ্গি নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বিভিন্ন এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনির জঙ্গিবিরোধি অভিযানে ৪ জন নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে সেখানকার পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) স্থানীয় সময় সন্ধ্যা থেকেই এই অভিযান শুরু হয় বলে আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

অভিযানে সোপিয়ান ও পুলওয়ামায় ৪ জন নিহত হয়েছে। জঙ্গিদের সঙ্গে সংঘর্ষে ৪ সেনাসদস্যও আহত হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) সন্ধ্যায় সোপিয়ানে সংঘর্ষে ৩ জঙ্গি নিহত হয়। এর বাইরে দুই জঙ্গি জান মহল্লা এলাকার একটি মসজিদ থেকে নিরাপত্তা বাহিনির সদস্যদের ওপর গুলি চালালে ৪ জওয়ান আহত হয়।

ওই মসজিদকে ঘিরে শুক্রবার (৯ এপ্রিল) সকালেও গোলাগুলি চলছিলো।

পুলওয়ামার ত্রালে বেশ কয়েকজন জঙ্গি লুকিয়ে আছে খবর পেয়ে নিরাপত্তা বাহিনি সেখানেও অভিযানে নামে। অভিযানে এক জঙ্গির নিহত হওয়ার খবর নিশ্চিত করে কাশ্মীর পুলিশ।

নিহতরা কোন সংগঠনের সঙ্গে জড়িত, তাৎক্ষণিকভাবে তা জানা যায় নি।

৯ এপ্রিল : সুয়েজখাল সব ধরনের জাহাজ চলাচলের জন্য উন্মুক্ত হয়

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : আজ শুক্রবার; ৯ এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ; ২৬ চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (বসন্তকাল)।

আজকের দিনটি গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জি অনুসারে বছরের ৯৯তম দিন।

এ হিসাবে, বছর শেষ হতে আরও ২৬৬ দিন বাকি রয়েছে।

এইদিনে সুয়েজখাল সব ধরনের জাহাজ চলাচলের জন্য উন্মুক্ত হয়।

ঘটনাবলি :
১২৪১ : লিইয়েগনিটয যুদ্ধে মোঙ্গল বাহিনির পোলিশ এবং জার্মান সৈন্যদের পরাজিত করে।
১৪১৩ : পঞ্চম হেনরি ইংল্যান্ডের রাজা হিসেবে অভিষিক্ত হন।
১৪৪০ : ক্রিস্টোফার ডেনমার্কের রাজা হন।
১৪৮৩ : প্রথম এডওয়ার্ড চতুর্থ এডওয়ার্ডকে ইংল্যান্ডের পরের রাজা হিসেবে নির্বাচিত করেন।
১৬০৯ : ৮০ বছরের যুদ্ধ স্পেন এবং ডাচ প্রজাতন্ত্র এন্টওয়ার্প এর চুক্তি স্বাক্ষরের মাধ্যমে যুদ্ধবিরতি শুরু করে।
১৭৮৩ : টিপু সুলতান বৃটিশদের কাছ থেকে বেন্দোর দখল করে নেয়।
১৭৫৬ : নবাব সিরাজ-উদ-দৌলা বা মির্জা মুহাম্মাদ সিরাজ-উদ-দৌলা রাজ্যভার গ্রহণ করেন।
১৮৭২ : স্যামুয়েল আর পার্সি গুঁড়ো দুধ প্যাটেন্ট করে।
১৯১৮ : লাটভিয়া স্বাধিনতা ঘোষণা করে।
১৯৪০ : দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ‘অপারেশন ওয়েসেরুবুং’ জার্মানিরা ডেনমার্ক ও নরওয়ে আক্রমণ করে।
১৯৪৫ : মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আণবিক শক্তি কমিশন গঠন করা হয়।
১৯৫৭ : সুয়েজখাল সব ধরনের জাহাজ চলাচলের জন্য উন্মুক্ত হয়।
১৯৬৫ : ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে সীমান্ত যুদ্ধ শুরু হয়।
১৯৭৪ : দিল্লিতে বাংলাদেশ-ভারত-পাকিস্তান ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে ১৯৫ জন পাকিস্তানি যুদ্ধবন্দীকে প্রত্যর্পণের চুক্তি সাক্ষরিত হয়।
১৯৯১ : জর্জিয়া সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়ার পক্ষে ভোট দেয়।
১৯৯৭ : বাংলাদেশ ক্রিকেট দল আইসিসি ট্রফিতে স্কটল্যান্ডকে পরাজিত করে বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে।
১৯৯৮ : সৌদি আরবে হজের শেষদিনে ভিড়ের চাপে পদদলিত হয়ে ১৫০ জন মুসল্লি নিহত হন।

জন্ম :
১২৮৭ : ইংল্যান্ডের রাজা চতুর্থ এডওয়ার্ড জন্মগ্রহণ করেন।
১৮০৬ : ইসাম্বারড কিংডম ব্রুনেল, ইংরেজ প্রকৌশলী ও ক্লিফটন সাসপেনশন ব্রিজ পরিকল্পক জন্মগ্রহণ করেন।
১৮২১ : ফরাসি কবি শার্ল বোদলেয়ার জন্মগ্রহণ করেন।
১৮৩০ : এয়াড্বেয়ারড মুয়ব্রিডগে, ইংরেজ ফটোগ্রাফার ও সিনেমাটোগ্রাফার জন্মগ্রহণ করেন।
১৮৩৫ : বেলজিয়ামের রাজা দ্বিতীয় লিওপল্ড জন্মগ্রহণ করেন।
১৮৬৫ : এরিক লুডেন্ডোরফ, জার্মান জেনারেল ও রাজনীতিক জন্মগ্রহণ করেন।
১৮৬৭ : ক্রিস ওয়াটসন, চিলির বংশোদ্ভূত অস্ট্রেলীয় সাংবাদিক, রাজনীতিক ও ৩য় প্রধানমন্ত্রী জন্মগ্রহণ করেন।
১৮৭২ : লিও বলুম, ফরাসি আইনজীবী, রাজনীতিক ও প্রধানমন্ত্রী জন্মগ্রহণ করেন।
১৮৯৩ : রাহুল সাংকৃত্যায়ন ভারতের সুপণ্ডিত ও স্বনামধন্য পর্যটক জন্মগ্রহণ করেন (মৃত্যু : ১৪/০৪/১৯৬৩ খ্রিস্টাব্দ)।
১৯০১ : পল উইলিয়ামস, মার্কিন অভিনেতা ও পরিচালক জন্মগ্রহণ করেন।
১৯২৫ : রোকনুজ্জামান খান, বাংলাদেশের প্রখ্যাত সাহিত্যিক ও সাংবাদিক জন্মগ্রহণ করেন (মৃত্যু : ০৩/১২/১৯৯১ খ্রিস্টাব্দ)।
১৯২৬ : হিউ হেফ্‌নার, মার্কিন প্রকাশক, এবং প্লেবয় পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান সম্পাদক জন্মগ্রহণ করেন।
১৯৩৮ : ভিক্টর চেরনোম্যরডিন, রাশিয়ান ব্যবসায়ি, রাজনীতিক ও ৩০তম প্রধানমন্ত্রী জন্মগ্রহণ করেন।
১৯৪৮ : জয়া বচ্চন, ভারতীয় অভিনেত্রী ও রাজনীতিক জন্মগ্রহণ করেন।
১৯৫৭ : সেভে বালেস্টেরস, স্প্যানিশ গলফ খেলোয়াড় ও স্থপতি জন্মগ্রহণ করেন।
১৯৬৬ : সিনথিয়া নিক্সন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অভিনেত্রী জন্মগ্রহণ করেন।
১৯৭৫ : রবি ফাওলার, সাবেক ইংরেজ ফুটবল খেলোয়াড় ও ম্যানেজার জন্মগ্রহণ করেন।
১৯৮৫ : আন্তোনিও নকেরিনো, ইতালিয়ান ফুটবলার জন্মগ্রহণ করেন।

মৃত্যু :
০৫৮৫ : সম্রাট জিমু, জাপানি সম্রাট।
০৪৯১ : যেনো, বাইজেন্টাইন সম্রাট।
১৫৫৩ : ফ্রাঁসোয়া রাবলে, ফরাসি সন্ন্যাসি ও পণ্ডিত।
১৫৫৭ : মিকায়েল আগ্রিকলা, ফিনিশ যাজক ও পণ্ডিত।
১৬২৬ : ফ্রান্সিস বেকন, ইংরেজ দার্শনিক।
১৭৫৪ : ক্রিস্টিয়ান উলফের, জার্মান দার্শনিক ও শিক্ষাবিদ।
১৭৫৬ : নবাব আলীবর্দী খাঁ, বাংলা, বিহার ও ওড়িশার নবাব।
১৮৮২ : ডান্টে গ্যাব্রিয়েল রসেটি, ইংরেজ চিত্রশিল্পী, চিত্রকর ও কবি।
১৮৮৯ : মাইকেল ইউজিনে শেভরেউল, ফরাসি রসায়নবিদ ও শিক্ষাবিদ।
১৯৩৬ : ফেরডিনান্ড টনিয়েস, জার্মান সমাজবিজ্ঞানি ও দার্শনিক।
১৯৪৫ : ডিয়েট্রিখ বোনহোফের, জার্মান যাজক ও ধর্মতত্ত্ববিদ।
১৯৪৫ : উইলহেম কানারিস, জার্মান নৌসেনাপতি।
১৯৫৯ : ফ্র্যাংকলয়েড রাইট, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্থপতি, ইন্টেরিওর ডিজাইনার, লেখক ও শিক্ষক।
১৯৮০ : মোহাম্মদ বাকির আল-সাদর, ইরাকি দার্শনিক।
১৯৯৩ : ইরানের বিখ্যাত শিল্পী ও লেখক সাইয়্যেদ মোর্তজা আয়ুবী।
২০০১ : শাকুর রানা, পাকিস্তানি আম্পায়ার।
২০০৯ : শক্তি সামন্ত ভারতীয় বাঙালি চলচ্চিত্র পরিচালক ও প্রযোজক (জন্ম : ১৩/০১/১৯২৬ খ্রিস্টাব্দ)।
২০১১ : সিডনি লুমেট, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরিচালক, প্রযোজক ও চিত্রনাট্যকার।

বাইডেনের জলবায়ু দূত কেরি ঢাকায়

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ডাকা জলবায়ু বিষয়ক শীর্ষ সম্মেলন নিয়ে আলোচনার জন্য ঢাকায় পৌঁছেছেন তাঁর জলবায়ু বিষয়ক বিশেষ দূত জন কেরি।

শুক্রবার (৯ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ভারতের নয়াদিল্লী থেকে বিমানে করে ঢাকায় পৌঁছালে তাঁকে স্বাগত জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে (আবুল কালাম) আব্দুল মোমেনসহ অন্যরা।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর স্ত্রী সেলিনা মোমেন কেরিকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল আর মিলার সেখানে ছিলেন।

বিকেল ৪টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বাইডেনের ডাকা ‘লিডারস সামিটের’ আমন্ত্রণপত্র তুলে দেবেন কেরি।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের আগে দুপুরে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেনের সঙ্গে বৈঠক করবেন মোমেন। এরপর যৌথ সংবাদ সম্মেলন করবেন তাঁরা।

জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাব মোকাবিলায় প্রতিশ্রুতির অংশ হিসেবে জানুয়ারিতে ক্ষমতাগ্রহণের পর থেকে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিচ্ছেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন।

দায়িত্ব নেওয়ার প্রথমদিনই প্যারিস জলবায়ু চুক্তিতে যুক্তরাষ্ট্রকে ফিরিয়ে আনেন তিনি, যা থেকে ৪ বছর আগে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিলো তাঁর পূর্বসূরি ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বাইডেন নিজের জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক বিশেষ দূতের দায়িত্ব দেন সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরিকে। তিনি প্যারিস জলবায়ু চুক্তির করার ক্ষেত্রে অগ্রণি ভূমিকায় ছিলেন তিনি।

জানুয়ারির শেষ সপ্তাহে বাইডেন ঘোষণা দেন, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় প্রধান প্রধান অর্থনীতির দেশগুলোকে উদ্বুদ্ধ করতে ‘লিডারস সামিট’ আয়োজন করবেন তিনি। এরপর মার্চের শেষ সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ ৪০ বিশ্ব নেতাকে আমন্ত্রণ জানান বাইডেন।

হোয়াইট হাউজ জানিয়েছে, ২২ এপ্রিল বিশ্ব ধরিত্রী দিবসে ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে শুরু হবে দু’দিনের এই শীর্ষ সম্মেলন। সাধারণ মানুষের দেখার জন্য সরাসরি সম্প্রচারের ব্যবস্থাও থাকবে।

এই সম্মেলনের পাশাপাশি নভেম্বরে অনুষ্ঠেয় জাতিসংঘের জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক ২৬তম সম্মেলন বা ‘কপ২৬’ নিয়ে আলোচনার জন্য সফর শুরু করেছেন বাইডেনের দূত কেরি।

পহেলা এপ্রিল থেকে শুরু সফরে ইতোমধ্যে আবুধাবি ও নয়াদিল্লীতে গিয়েছেন তিনি। শেষ গন্তব্য ঢাকা সফর শেষে শুক্রবারই (৯ এপ্রিল) দেশের পথ ধরবেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

বাইডেনের আহ্বানে যখন জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে বৈশ্বিক সম্মেলন আয়োজন হচ্ছে, তখন জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকিতে থাকা দেশগুলোর জোট ক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরামের (সিভিএফ) সভাপতির দায়িত্বে রয়েছে বাংলাদেশ।

এ কারণে কেরির সফর ও সম্মেলনকে বাংলাদেশের জন্য তাৎপর্যপূর্ণ হিসেবে বর্ণনা করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা আমাদের অগ্রাধিকারের বিষয়গুলো তুলে ধরতে পারবো এবং বিশ্ববাসিকে জানাতে পারবো জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতি মোকাবিলায় আমাদের নেওয়া পদক্ষেপগুলোও।’

ঢাকায় ভারতীয় সেনাপ্রধান

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : ঢাকা পৌঁছেছেন ভারতের সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নরভানে। বৃহস্পতিবার তিনি (৮ এপ্রিল) হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের আমন্ত্রণে ৫ দিনের সফরে তিনি ঢাকা এসেছেন।

মনোজ মুকুন্দ নরভানের সঙ্গে রয়েছেন তাঁর স্ত্রী শ্রীমতী বীণা নরভানে এবং ২ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল।

ভারতীয় হাইকমিশনের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ভারতীয় সেনাপ্রধান ঢাকা সফরকালে বাংলাদেশ সেনা, নৌ ও ভারপ্রাপ্ত বিমান বাহিনি প্রধান এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। তিনি বাংলাদেশের বিভিন্ন সামরিক ঘাঁটিও পরিদর্শন করবেন।

বাংলাদেশ আসার পর ইতোমধ্যে ঢাকা সেনানিবাসের শিখা অনির্বাণের বেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে আত্মত্যাগকারি বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের শ্রদ্ধা জানিয়েছেন ভারতীয় সেনাপ্রধান।

এ সফরে তিনি জাতিসংঘের শান্তির সমর্থনে অপারেশন সম্পর্কিত সেমিনারে অভিজ্ঞতা বিনিময় করবেন। যৌথ সামরিক অনুশীলন-শান্তির অগ্রসেনার সমাপনি অনুশীলন, হার্ডওয়্যার প্রদর্শনি এবং সমাপনি অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন।

এই সফর দু’দেশের সশস্ত্র বাহিনির মধ্যে বিদ্যমান ঘনিষ্ঠ ও ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ককে আরও জোরদার করবে বলে জানায় ভারতীয় হাইকমিশন।

টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন মোদি

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : করোনাভাইরাস টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) দিল্লির অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সেস (এআইআইএমএস) এ তিনি টিকার এ ডোজটি নিয়েছেন বলে ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে।

পহেলা মার্চ টিকার প্রথম ডোজ নেওয়ার ৩৭ দিন পর তিনি দ্বিতীয় ডোজ নিলেন।

টুইটারে নিজের দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার একটি ছবি পোস্ট করে টিকা নেওয়ার যোগ্য সবাইকে দ্রুত তা নিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

পহেলা মার্চ ভারতে টিকাদান কর্মসূচির দ্বিতীয় পর্বে প্রথম টিকা নেওয়া ব্যক্তি ছিলেন মোদি। ওই পর্বে দেশটির ৬০ বছর বা তার বেশি বয়সি ও ৪৫ বছর বা তার বেশি বয়সি গুরুতর অসুস্থদের টিকা নেওয়ার সুযোগ উন্মুক্ত করা হয়েছিলো।

মোদি ভারত বায়োটেক ও ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চের (আইসিএমআর) তৈরি করোনাভাইরাস টিকা ‘কোভ্যাক্সিন’ নিয়েছেন।

টুইটে মোদি বলেন, ‘আজ এআইআইএমএসে কোভিড-১৯ টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলাম। ভাইরাসকে হারানোর যে অল্প কয়েকটি উপায় আমাদের আছে, তারমধ্যে টিকা অন্যতম। আপনি টিকা নেওয়ার যোগ্য হলে দ্রুত নিয়ে নিন।’

ভারতে টিকা নেওয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশন করার পোর্টাল কউয়িন ওয়েবসাইটে এই টুইটের লিঙ্ক শেয়ার করেছেন মোদি, জানিয়েছে এনডিটিভি।

টিকা নেওয়ার সময় মাস্ক পড়েছিলেন মোদি।

চলতি বছরের ১৬ জানুয়ারি থেকে ভারতে করোনাভাইরাস টিকা দেওয়ার কর্মসূচি শুরু হয়। প্রথম পর্বে দেশটির স্বাস্থ্যকর্মিরা ও অন্যান্য সামনের সারির কর্মিরা টিকা নেওয়ার সুযোগ পান।

ভারতের টিকা কর্মসূচিতে কোভ্যাক্সিনের পাশাপাশি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও ওষুধ কোম্পানি অ্যাস্ট্রাজেনেকার অংশদারিত্বে উদ্ভাবিত ও পুনেভিত্তিক সেরাম ইনিস্টিটিউটের উৎপাদিত কোভিশিল্ডও ব্যবহার করা হচ্ছে।

টেক্সাসে একই পরিবারের ৬ বাংলাদেশির মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাংলা কাগজ; শাফিনুর রহমান, যুক্তরাষ্ট্র : যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে ৬ বাংলাদেশির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় বাংলাদেশি এবং বাংলা ভাষাভাষি কমিউনিটিতে ব্যাপক চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে।

টেক্সাসের স্থানীয় সময় সোমবার (৫ এপ্রিল) এলেন শহরের একটি বাড়ি থেকে পুলিশ ওই ৬ মরদেহ উদ্ধার করে।

স্থানীয় বাংলাদেশি কমিউনিটি সূত্রে জানা গেছে, নিহত প্রত্যেকেই বাংলাদেশি। উদ্ধার হওয়া মৃত ব্যক্তিরা হলেন সিটি ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট শাম তৌহিদ, তাঁর স্ত্রী মিসেস নীনা, তাঁদের দুই ছেলে ও এক মেয়ে এবং শাম তৌহিদের বৃদ্ধা মা।

পুলিশের মুখপাত্র সার্জেন্ট জন ফেল্টি বলেন, দুই ভাই নিজেরা ঠিক করেছিলো যে তারা সুইসাইড করবে এবং সেইসঙ্গে পুরো পরিবারকে মেরে ফেলবে। সে অনুযায়ি, তারা হত্যাযজ্ঞ সম্পন্ন করে থাকতে পারে।

‘দুই ভাইয়ের একজন যার বয়স ১৯ বছর সে সোশ্যাল মিডিয়ার একটি দীর্ঘ সুইসাইড নোট রেখে গেছে। তাতে সে নিজেকে মানসিক বিকারগ্রস্ত বলে উল্লেখ করেছে।’

তবে কমিউনিটির লোকজন বলছেন, ওই ছেলে দুটো অনেক মেধাবি ছিলেন এবং তাঁদের কাছে কখনোই ছেলো দুটোকে কখনোই মানসিক বিকারগ্রস্থ বলে মনে হয় নি।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, গত শনিবার (৩ এপ্রিল) তাঁদের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনার কারণ বের করতে তদন্ত করছে পুলিশ।

৫ এপ্রিল : সুভাষচন্দ্র বসু রেঙ্গুনে আজাদ হিন্দ ব্যাঙ্ক স্থাপন করেন

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : আজ সোমবার; ৫ এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ; ২২ চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (বসন্তকাল)।

আজকের দিনটি গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জি অনুসারে বছরের ৯৫তম দিন।

এ হিসাবে, বছর শেষ হতে আরও ২৭০ দিন বাকি রয়েছে।

এইদিনে সুভাষচন্দ্র বসু রেঙ্গুনে আজাদ হিন্দ ব্যাঙ্ক স্থাপন করেন।

ঘটনাবলি :
১০৪৬ : নাসের খসরু তাঁর ৭ বছরের জন্য মধ্যপ্রাচ্যের ভ্রমণ শুরু করেন, যার বিবরণ পরে তার ‘সাফামামা’ বইটিতে দিয়েছিলেন।
১৬১৬ : ক্যাথলিক চার্চ কর্তৃপক্ষ নিকোলাস কোপার্নিকাসের বই বাতিল করা হয়।
১৭৫৩ : বৃটিশ যাদুঘর প্রতিষ্ঠিত হয়।
১৭৯৪ : ফরাসি বিপ্লবের অন্যতম নায়ক হিসেবে পরিচিত জর্জ ডাটনকে গিলোটিনের মাধ্যমে প্রাণদণ্ড কার্যকর করা হয়।
১৮৮০ : শিবপুর বেঙ্গল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয়।
১৮৯৯ : দক্ষিণ আফ্রিকা ৩৫ রানে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অল আউট হয়।
১৯১৮ : জার্মান বাহিনি তাঁদের আনুষ্ঠানিকভাবে অপারেশন মাইকেলের সমাপ্তি ঘোষণা করে।
১৯৩১ : ব্রিটিশ গভর্নর জেনারেলও মহাত্মা গান্ধীর মধ্যে চুক্তি সই হয়। যা ছিলো রাজনৈতিক বন্দিদের মুক্তি এবং গরিবের জন্য লবণের অধিকার সংরক্ষণক বিষয়ক।
১৯৪৪ : সুভাষচন্দ্র বসু রেঙ্গুনে আজাদ হিন্দ ব্যাঙ্ক স্থাপন করেন।
১৯৪৫ : যুগোশ্লাভিয়ায় সোভিয়েত সৈন্যদের প্রবশের অনুমতি দিয়ে দেশটির নেতা টিটো ক্রেমলিনের সঙ্গে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেন।
১৯৪৭ : গ্লোরিয়া মাকাপাগাল আরোইয়ো ফিলিপাইনের ১৪তম রাষ্ট্রপতি হন।
১৯৫১ : তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নের কাছে পরমাণু বিষয়ক গোপন তথ্য পাচারের দায়ে যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানি দম্পতি জুলিয়াস এবং ইথেল রোজেনবার্গকে প্রাণদণ্ড প্রদান করা হয়।
১৯৬০ : কিউবান ফটোগ্রাফার আলবার্তো কোবা মার্কসিস্ট বিপ্লবি চে গুয়েভারার বিখ্যাত ছবিটি তুলেন।
১৯৬৪ : লন্ডনে চালকবিহীন স্বয়ংক্রিয় পাতালরেল চালু হয়।
১৯৭১ : সিসিলিতে এটসা আগ্নেয়গিরি অগ্নুৎপাতে প্রচুর লাভা উদ্‌গিরণ হয়।
১৯৯৫ : বার্লিনে জলবায়ু সংক্রান্ত জাতিসংঘ সম্মেলন শুরু।

জন্ম :
১৫৮৮ : টমাস হব্‌স, ইংরেজ দার্শনিক জন্মগ্রহণ করেন (মৃত্যু : ১৬৭৯ খ্রিস্টাব্দ)।
১৮২৭ : জোসেফ লিস্টার, ব্রিটিশ শল্যচিকিৎসক এবং আধুনিক শল্যচিকিৎসার জনক জন্মগ্রহণ করেন (মৃত্যু : ১৯১২ খ্রিস্টাব্দ)।
১৮৮২ : অবিনাশচন্দ্র ভট্টাচার্য, ব্রিটিশ বিরোধি স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন ব্যক্তিত্ব ও অগ্নিযুগের বিপ্লবি জন্মগ্রহণ করেন (মৃত্যু : ১৯৬২ খ্রিস্টাব্দ)।
১৮৯৫ : ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যান চার্লি হ্যালোস জন্মগ্রহণ করেন।
১৯০০ : স্পেন্সার ট্রেসি, মার্কিন অভিনেতা জন্মগ্রহণ করেন (মৃত্যু : ১৯৬৭ খ্রিস্টাব্দ)।
১৯০১ : মেলভিন ডগলাস, মার্কিন অভিনেতা জন্মগ্রহণ করেন (মৃত্যু : ১৯৮১ খ্রিস্টাব্দ)।
১৯০৫ : শিল্পপতি এ কে খান জন্মগ্রহণ করেন।
১৯০৮ : বেটি ডেভিস, মার্কিন অভিনেত্রী জন্মগ্রহণ করেন (মৃত্যু : ১৯৮৯ খ্রিস্টাব্দ)।
১৯১৬ : গ্রেগরি পেক, মার্কিন অভিনেতা জন্মগ্রহণ করেন (মৃত্যু : ২০০৩ খ্রিস্টাব্দ)।
১৯২৯ : গোলাম সামদানী কোরায়শী, বাংলাদেশের বিশিষ্ট সহিত্যিক, গবেষক ও অনুবাদক (মৃত্যু : ১৯৯১ খ্রিস্টাব্দ)।
১৯৩৮ : কলিন ব্ল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটার জন্মগ্রহণ করেন (মৃত্যু : ২০১৮ খ্রিস্টাব্দ)।
১৯৪৭ : গ্লোরিয়া মাকাপাগাল আরোইয়ো, ফিলিপাইনের ১৪তম রাষ্ট্রপতি জন্মগ্রহণ করেন।
১৯৫৫ : আকিরা তোরিয়ামা, জাপানি মাঙ্গা চিত্রশিল্পী ও ভিডিও গেম শিল্পী জন্মগ্রহণ করেন।

মৃত্যু :
১৯৩২ : প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়, বাঙালি সাহিত্যিক (জন্ম : ০৩/০২/১৮৭৩ খ্রিস্টাব্দ)।
১৯৩৮ : ওয়েস্ট ইন্ডিজের উইকেটকিপার কিরিল ক্রিশ্চিয়ানি।
১৯৩৯ : উইলিয়াম কুপার, অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার (জন্ম : ১৮৪৯ খ্রিস্টাব্দ)।
১৯৪০ : দীনবন্ধু চার্লস ফ্রিয়ার এন্ড্রুজ, ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের একনিষ্ঠ সেবক (জন্ম : ১২/০২/১৮৭১ খ্রিস্টাব্দ)।
১৯৭৫ : চীনা রাজনৈতিক ও সামরিক নেতা চিয়াং কাই শেকের মৃত্যু হয়।
২০০০ : কণিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, ভারতীয় বাঙালি রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী (জন্ম :১২/১০/১৯২৪ খ্রিস্টাব্দ)।
২০০৭ : লীলা মজুমদার, ভারতীয় বাঙালি লেখিকা (জন্ম : ২৬/০২/১৯০৮ খ্রিস্টাব্দ)।
২০০৮ : চার্লটন হেস্টন, মার্কিন অভিনেতা ও রাজনৈতিক কর্মি (জন্ম : ১৯২৩ খ্রিস্টাব্দ)।
২০০৯ : জর্জ ট্রাইব, অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার (জন্ম : ১৯২০ খ্রিস্টাব্দ)।

দিবস :
জাতীয় সামুদ্রিক দিবস, ভারত।

৩ থেকে ১৮ এপ্রিল ইউরোপ ছাড়া আরও ১২ দেশ থেকে আসা যাবে না বাংলাদেশে

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : নতুন করে করোনাভাইরাস মহামারির প্রকোপ বাড়ায় ইংল্যান্ড বাদে পুরো ইউরোপ এবং বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলের ১২টি দেশ থেকে বাংলাদেশে যাত্রি পরিবহন নিষিদ্ধ করেছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)।

এ আদেশ কার্যকর হয়েছে শুক্রবার (২ এপ্রিল) দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে।

যা বহাল থাকবে আগামি ১৮ এপ্রিল পর্যন্ত। একইসঙ্গে রাত ১২টার পর আগতদের ১৪ দিনের হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনের বিধিনিষেধও কার্যকর হয়েছে।

কোয়ারেন্টিন সুষ্ঠুভাবে প্রতিপালনের জন্য প্রয়োজনে আলোচনা করে যাত্রিদের পাসপোর্ট জমা রাখার পরিকল্পনাও করছে বেবিচক।

যুক্তরাজ্য ছাড়া ইউরোপের সবকটি দেশ এ নিষেধাজ্ঞার আওতায় রয়েছে।

অন্য ১২টি দেশ হলো : আর্জেন্টিনা, বাহরাইন, ব্রাজিল, চিলি, জর্ডান, কুয়েত, লেবানন, পেরু, কাতার, সাউথ আফ্রিকা, তুরস্ক ও উরুগুয়ে।

৩ এপ্রিল থেকে ১৮ এপ্রিল পর্যন্ত এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর থাকবে বলেই জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল হিলে হামলায় পুলিশ কর্মকর্তা ও হামলাকারি নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাংলা কাগজ : যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে ক্যাপিটল কমপ্লেক্সে হামলার ঘটনায় এক পুলিশ কর্মকর্তা নিহত ও আরেকজন আহত হয়েছেন। পাশাপাশি নিহত হয়েছেন হামলকারি।

জানা গেছে, একটি গাড়ি কমপ্লেক্সের নিরাপত্তা বেষ্টনি ভেদ করে ভেতরে ঢুকে যায় এবং তারপর চালক একটি ছুরি নিয়ে পুলিশ কর্মকর্তাদের দিকে ছুটে যায় বলে বিবিসি জানিয়েছে।

কর্মকর্তারা গুলি ছুঁড়লে অজ্ঞাতপরিচয় ওই হামলাকারি মারা যান।

এই হামলার ঘটনাকে সন্ত্রাসবাদ সম্পর্কিত বলে মনে করছেন না ওয়াশিংটন ডিসির ভারপ্রাপ্ত পুলিশ প্রধান রবার্ট কন্তি।

ক্যাপিটল পুলিশের বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, আহত কর্মকর্তাকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এক প্রত্যক্ষদর্শির বরাত দিয়ে রয়টার্স লিখেছে, দেশটির স্থানীয় সময় শুক্রবার (২ এপ্রিল) সকালে ওই ঘটনার পর ক্যাপিটল ভবন এবং কংগ্রেসের অফিস ভবনগুলোতে যাওয়ার সব পথ পুলিশ আটকে দেয়।

পুলিশের কয়েক ডজন গাড়িকে ক্যাপিটলের দিকে ছুটতে দেখা যায়। একটি হেলিকপ্টারও উড়ে যায় উপর দিয়ে। সাধারণ নাগরিকদের সেখান থেকে সরে যেতে বলা হয়।

গত ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল ভবনে ডোনাল্ড ট্রাম্প সমর্থকদের হামলার রক্তাক্ত ঘটনার ৩ মাসের মাথায় নতুন করে এ ঘটনা ঘটলো।